fbpx
পশ্চিমবঙ্গ

মহাজনের ঋণ আর অতিমারীর সংকটে বেকায়দায় পূর্ব মেদিনীপুরের মাইক ব্যবসায়ীরা

বাবলু ব্যানার্জি কোলাঘাট: বাঙালির উৎসবের সূচনা রাত পোহালেই, বিশ্বকর্মা পুজো দিয়ে শুরু। কিন্তু করোনা আবহে চরম সমস্যার পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মাইক ব্যবসায়ীরা । করোনা আবহে চূড়ান্ত আর্থিক সংকটে ভুগছে মাইক ব্যবসায়ীরা। করো সংকটের জন্য এই পরিস্থিতি দায়ী বলে জানাচ্ছে মাইক ব্যবসায়ীরা। অন্যান্য বছরের মতো এবার জাঁক জমকপূর্ণ ভাবে পুজো হওয়ার সম্ভাবনা একেবারেই নেই বললেই চলে। পিতৃপক্ষের অবসান মাতৃ পক্ষের সূচনা বাঙালির বড় পুজো শুরু হতে বেশি দেরি না হলেও এই উৎসবকে যারা আরো আনন্দমুখর করে তুলে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন শিল্পীর গান বাজিয়ে সেই মাইক ব্যবসায়ীরা আজ হতাশার মধ্যে দিন কাটাচ্ছে।

এই বছরের চিত্র সম্পূর্ণ ভিন্ন।পুজোর বায়না হয়নি এখনও। তারা মুখ চেয়ে বসে আছে পূজা কমিটিগুলির দিকে। অন্যান্য বছরে বিশ্বকর্মা পুজোর দিন কোলাঘাট ব্লকের ছোট ছোট  কলকারখানায় আগের দিন থেকেই দেখা যেত গানের সঙ্গে শ্রমিকদের নাচগান। এবছর সেই নাচাগানা এখনো পর্যন্ত চোখে পড়েনি। এই ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছোট বড় মিলে প্রায় শতাধিক। অনেক আশা নিয়ে বছরের প্রথম দিন থেকেই মহাজনের কাছ থেকে ধার নিয়ে সেটের ব্যবস্থা করেছিল ব্যবসায়ীরা, হঠাৎ করোনার কবলে পড়ে সেই দেনা কিভাবে শোধ করবে তা তাদের চিন্তার শেষ থাকছে না। কোলাঘাট ব্লকের ধর্মবেড় গ্রামের মাইক ব্যবসায়ী অজিত সামন্ত, বিশ্বনাথ পাঁজা,বাপন পাঁজা সহ একাধিক ব্যবসায়ী আক্ষেপের সুরে বলতে দেখা গেল এমনিতেই তাদের এখনো পর্যন্ত কোন পুজো প্যান্ডেল বায়না দিতে আসেনি কতটুকু আসছে তা কম বাজেটের, আগামী দিনগুলোতে তাদের সংসার চলবে কেমন করে সেই চিন্তাই এখন কুঁকড়ে কুঁকড়ে খাচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close