fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নন্দীগ্রামে তুলকালাম! পথশ্রী অভিযান প্রকল্পের অনুষ্ঠান মঞ্চ ভেঙে দিলেন জনগণ

রাজকুমার আচার্য, নন্দীগ্রাম: পথশ্রী অভিযান প্রকল্পের অনুষ্ঠানকে ঘিরে সোমবার তুলকালাম কাণ্ড হল নন্দীগ্রামে। সরকারি এই অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগেই ক্ষীপ্ত জনতা ভেঙে দিলেন অনুষ্ঠান মঞ্চ। প্রশাসনিক আধিকারিকদের ঘিরে শুরু হয় বিক্ষোভ। ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনি পৌঁছালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

 

ঘটনাটি ঘটেছে নন্দীগ্রাম ২ নম্বর ব্লকের সিঁদুরটিয়া এলাকায়। সিঁদুরটিয়া বাসস্ট্যাণ্ড থেকে দীনবন্ধু প্রধানের চেম্বার পর্যন্ত পথশ্রী অভিযান প্রকল্পের কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল এদিন। সেই মতো অনুষ্ঠান মঞ্চ তৈরি করা হয়েছিল। উপস্থিত হয়েছিলেন প্রশাসনের আধিকারিকরা। কিন্তু অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগে উত্তেজিত জনতা অনুষ্ঠান মঞ্চ ও বিভিন্ন সরঞ্জাম ভেঙে দেয়। আধিকারিকদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখান। তৃণমূলের কয়েকজন নেতাকে এলাকার মানুষজন আটক করে রেখেছিলেন বলে জানা গিয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরে নন্দীগ্রামের বিভিন্ন এলাকার রাস্তাঘাট খারাপ হয়ে থাকায় বারবার এলাকার মানুষজন প্রতিবাদ করে আসছেন। কোথাও কোথাও বেহাল রাস্তায় ধান চারা পুঁতে প্রতিবাদ জানিয়েছেন তাঁরা। এই এলাকার মানুষজনও দীর্ঘদিন ধরে বেহাল রাস্তাটি কংক্রিট দিয়ে ঢালাই করার কথা বারবার প্রশাসনের কাছে আবেদন করে আসছেন। কিন্তু কোনও সুরাহা হয়নি বলে অভিযোগ। এদিন এলাকার মানুষজন বলেন, ‘আজ হঠাৎ দেখলাম রাস্তার পাশে একটি সরকারি অনুষ্ঠান হওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। সাইনবোর্ড লেখা রয়েছে যে, পথ পুননির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ! বিডিও সাহেব সুরজিৎ রায়ের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারলাম রাস্তা ঢলাই করা হবে না। ছাই ফেলে মেরামত করা হবে। এ কথা জানার পর এলাকার মানুষজন ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। প্রশাসনের দেওয়া দীর্ঘদিনের প্রতিশ্রুতির বির্সজনের অনুষ্ঠান হচ্ছে দেখে ক্ষিপ্ত জনতা ভেঙে দিয়েছেন অনুষ্ঠান মঞ্চ।’

বিজেপির তমলুক সাংগঠনিক জেলা সহসভাপতি প্রলয় পাল বলেন, ‘ভোটের আগে কাটমানি খাওয়ার জন্য মমতা ব্যানার্জী এই পথশ্রী প্রকল্প চালু করেছেন। যা নন্দীগ্রামের ভুক্তভোগী জনসাধারণ ভাল চোখে দেখছেন না। তাই বিজেপির কিছু কর্মী-সমর্থক এবং গ্রামবাসী উদ্বোধনের আগে সিঁদুরটিয়াতে স্টেজ ভেঙে প্রতিবাদ করেছেন। সবাই বুঝে গেছেন কাটমানি খাওয়ার জন্য এই প্রকল্প, বাস্তবে তৃণমূল সরকার রাস্তাঘাটের প্রকৃত উন্নতি করতে পারবে না।’

Related Articles

Back to top button
Close