fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নারী নিগ্রহ, ধর্ষণ ও হত্যা কান্ডের বিরুদ্ধে বালিচকে প্রতিবাদ মিছিল ও থানায় ডেপুটেশন সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষের  

তারক হরি, পশ্চিম মেদিনীপুর: উত্তরপ্রদেশের হাথরস, পশ্চিমবঙ্গের ডেবরা, চন্দ্রকোনা সহ সারা ভারতবর্ষের রাজ্য জুড়ে একটার পর একটা নারী নিগ্রহ, ধর্ষণ ও প্রমাণ লোপাটের জন্য নৃশংস হত্যা কান্ডে দোষীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি। এছাড়া ন্যায় বিচার ও যত্রতত্র মদের ঠেক বন্ধের দাবিতে এবং প্রশাসনের পক্ষপাতমূলক ভূমিকার বিরুদ্ধে ‘ বলিচক স্টেশন উন্নয়ন কমিটি’ র পক্ষে কয়েকশো নানান স্তরের মানুষ বলিচক রেল স্টেশন থেকে ডেবরা থানা পর্যন্ত একটি প্রতিবাদ মিছিল করে ডেবরা থানায় একটি গণডেপুটেশন দিল।

‘বলিচক স্টেশন উন্নয়ন কমিটি’র সম্পাদক কিংকর অধিকারী এ বিষয়ে জানান, “আমরা আজ ডেবরা থানায় কমিটির পক্ষ থেকে কয়েক দফা দাবি নিয়ে একটি ডেপুটেশন দিলাম, ডেবরা থানার সাব ইন্সপেক্টর দিলীপ কুমার দত্ত বাবু তিনি ওসির পক্ষে গ্রহণ করেন। বিগত দিনে ডেবরা ব্লকে এ ধরণের নানা ঘটনা ঘটেছে। প্রতিটি ক্ষেত্রে কিছু অপরাধীকে গ্রেপ্তার করা হয়, কিন্তু প্রকৃত পক্ষে তাদের শাস্তির খবর জনসম্মুখে আসে না। প্রতিটিক্ষেত্রে প্রশাসনকে আরও তৎপরতার সহিত পদক্ষেপ গ্রহণ করে বিচারে দোষীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। অনেক সময় প্রভাবশালী ব্যক্তির ক্ষেত্রে প্রশাসনিক ভাবে তৎপরতার সঙ্গে ভূমিকা গ্রহণ করা হয় না।

              আরও পড়ুন: এবার করোনায় আক্রান্ত হলেন কংগ্রেস নেতা আবু হাসেম খান চৌধুরী

যেখানে সেখানে মদের ঠেক রমরমিয়ে চলেছে, ওই বেআইনি ঠেক গুলো উচ্ছেদ করা হোক। আমরা জনসাধারণের উদ্দেশ্যে বলতে চাই নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, এবং হত্যা কাণ্ডের বিরুদ্ধে দল মত নির্বিশেষে সচেতন ভাবে তীব্র ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে না পারলে অপরাধের দৌরাত্ম্য বন্ধ হবে না।

আমরা আরও একটি বিশেষ দাবী জানিয়েছি যে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলি সমন্ধে জনগণের মধ্যে সঠিক বার্তা পৌঁছে দেওয়ার জন্য ডেবরা পুলিশের পক্ষ থেকে সোশাল মিডিয়াতে একটি পেজ খোলা হোক, সেখানে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার ক্ষেত্রে প্রশাসনিক পদক্ষেপের আপডেট খবর গুলি জনসমক্ষে তুলে ধরা হোক, তাতে বোঝা যাবে যে প্রশাসন কতটা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। অবশ্য ওনারা এই বিষয়ে সহমত প্রকাশ করেছে, আমার মনে হয় তাতে ডেবরা থানার একটা উজ্জ্বল ভাবমূর্তিই প্রকাশ পাবে। ”

এরপর ডেবরা থানার সাব ইন্সপেক্টর দিলীপ কুমার দত্ত বলেন.” ডেবরার চন্ডীপুর গ্রামে কিশোরীর মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, আইনানুগ যা যা করণীয় তার পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে এবং হচ্ছে। যত্রতত্র মদের ঠেকের কোনো নির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে আমরা গুরুত্ব সহকারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করব।”

‘বলিচক স্টেশন উন্নয়ন কমিটি’র প্রতিনিধিত্ব করেন কমিটির সভাপতি সুভাষ চন্দ্র মাইতি, কমিটির যুগ্ম সম্পাদক কিংকর অধিকারী, কালিশঙ্কর গাঙ্গুলি, প্রমুখ এবং অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোহিনী মোহন মাইতি, রিনা মাইতি, শিবু দাস, অবসরপ্রাপ্ত আধিকারিক কুমারেশ উকিল, নিতাই চরণ মাকড়, নয়ন মান্না, সহ অন্যান্যরা এছাড়াও সমাজের নানা স্তরের বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী থেকে ব্যবসায়ী, সরকারী কর্মজীবি, ছাত্র, গৃহবধূ ও সাধারণ মানুষেরা এই প্রতিবাদ মিছিলে পা মেলান।

 

Related Articles

Back to top button
Close