fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

ভারতের সঙ্গে সংঘাত! দেশের কমিউনিস্ট পার্টির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন চিনা নাগরিকরা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বাইরের পর এবার নিজের দেশের ঘরেই বেজায় চাপে চিনা কমিউনিস্ট পার্টি। ভারতের সঙ্গে সংঘাতে মৃত সেনাদের সম্মান জানাতে জানেনা সে দেশের সরকার। এমন দাবি জানিয়ে রাষ্ট্রপতি জাইজিং স বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন সে দেশের নেটিজেনরা।

গত সপ্তাহে সোমবার অর্থাৎ ১৫ জুন রাতে গালওয়ান উপত্যকা চিনা আগ্রাসনের ফলে ভারত-চিন সেনার মধ্যে ব্যপক সংঘর্ষ হয়। সেই সংঘর্ষের ২০ জন ভারতীয় সেনা শহীদ হয়েছেন বলে ভারতের পক্ষ থেকে জানানো হলেও চিনা সেনার ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ সরকারি ভাবে সামনে আনেনি চিন। এমনকি জনানো হয়নি কতজনের মৃত্যু হয়েছে। চিনের এই আচরণ নিয়ে এবার প্রশ্ন তুলেছে সেই দেশের একাংশ।

চিনের সঙ্গে সংঘর্ষে প্রথমে এক জন সেনা কর্তা সহ দু জন ভারতীয় সেনা শহীদ হয়েছেন এক কথা জানানো হলেও পরে ভারত সরকাররের পক্ষ থেকে জানানো হয় তিনজন নয় পিপলস লিবারেশন আর্মির সঙ্গে সংঘর্ষের প্রাণ গিয়েছে ২০ জনের। ভারতের পক্ষ থেকে ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ স্পষ্ট করে দেওয়া হলেও গোপনীয়তা বজায় রেখেছে চিন। তবে গত কালই চিন প্রথম সরকারি ভাবে জানিয়েছে চিনা ফৌজের এক কমান্ডারের মৃত্যু হয়েছে। চিনের এই গোপনীয়তার ফলে সে দেশের সোশ্যাল মিডিয়াগুলিতে দেখা দিয়েছে ক্ষোভ। সেই সঙ্গে চিনের সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে এসেছে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কথা। সেখানে উল্লেখিত হয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী, রাজনৈতিক নেতা সহ গোটা ভারত ২০ জন শহীদ জওয়ানের প্রতি কিভাবে সম্মান জানিয়েছে।

চিনে সেনার মৃত্যু বা হহতের সংখ্যা জনগণকে না জানানোয় চিনের কমিউনিস্ট পার্টি এবং চিন সরকারকে সরাসরি লক্ষ্য করে চিনের নেটাগরিকদের একাংশ জানিয়েছে, “কী ভাবে শহিদদের সম্মান করতে হয়, তা ভারতকে দেখে শিখুন।” চিন সরকারের বিরুদ্ধে চিনা নেটিজেনদের একাংশ জানিয়েছেন গোপনে পিপলস লিবারেশন আর্মির মৃত কমান্ডারের দেহ তাঁর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। চিনের অনেকেই প্রশ্ন তুলেছে মৃত সেনাদের কথায় রাখা হয়েছে ও শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়েছে কিনা। সেই তথ্য দেশের মানুষের অজানা। যদিও চিন দাবি করেছে ভারতের থেকে তাদের কম সেনা নিহত হয়েছে তবে সংখ্যা জানায়নি।

Related Articles

Back to top button
Close