fbpx
অফবিটদেশহেডলাইন

ফিজিক্সে PhD, পথে ফুল বিক্রেতা, ইংরেজিতে লকডাউনকে ‘একহাত’ ইন্দোর তরুনীর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: রাস্তার ধারের ফল বিক্রেতা৷ এ হেন এক তরুণী ঝরঝরে ইংরেজিতে বারংবার লকডাউনের প্রতিবাদ করছেন সংবাদমাধ্যমের সামনে৷ এই দৃশ্য দেখে থমকে গিয়েছিলেন ইনদওর শহরের পথচলতি মানুষ৷ ধীরে ধীরে তরুণীকে ঘিরে ভিড় বাড়তে থাকল৷ শেষ পর্যন্ত ওই তরুণীই জানালেন, ফল বিক্রি করলেও তাঁর পিএইচডি ডিগ্রি রয়েছে৷

বুধবার থেকেই রইসা আনসারি নামে ওই তরুণীর ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে৷ ইনদওর শহরের মালওয়া মিল এলাকায় ফল বিক্রি করেন ওই তরুণী৷ করোনা সংক্রমণ রুখতে ইনদৌরে বার বার লকডাউন জারি করা নিয়ে প্রশাসনিক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধেই প্রতিবাদ করছিলেন তিনি৷ তাঁর অভিযোগ ঘুরিয়ে ফিরিয়ে লকডাউন জারি হওয়ায় ওই এলাকার ফল এবং সবজি বিক্রেতাদের উপার্জন বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে৷

রইসা জানিয়েছেন, তিনি পদার্থবিদ্যায় এমএসসি করেছেন৷ ইনদওরের দেবী আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১১ সালে মেটেরিয়াল সায়েন্স নিয়ে তিনি গবেষণা শেষ করেছেন বলেও দাবি করেন ওই তরুণী৷

ক্ষোভের সঙ্গে তিনি বলেন, ‘আজ শহরের একদিকে লকডাউন করা হচ্ছে তো কাল অন্যপ্রান্ত লকডাউন চলছে৷ এর ফলে বাজারে কার্যত কোনও ক্রেতাই নেই, বেচাকেনাও বন্ধ৷ আমরা নিজেদের পরিবারের খাবার জোগাব কী করে?’ রইসার দাবি, ওই চত্বরে তাঁর মতো অনেকেই পারিবারিক সূত্রে ফলের বিক্রির পেশায় এসেছেন৷

রইসাকে দেখে চিনতে পেরেছেন তার পুরনো ফিজিক্সের অধ্যাপকরাও। দেবী আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক স্মৃতিচারণায় বলেন একজন পরিশ্রমী মধাবী ছাত্রী ছিলেন। সে কেন ফোন বিক্রেতারা পেশা বেছে নিলেন সেটাই বুঝতে পারছনা অধ্যাপকরা।

Related Articles

Back to top button
Close