fbpx
কলকাতাবিনোদনহেডলাইন

অবস্থার সামান্য অবনতি ‘ফেলুমিত্তিরের’, ফের চালু হচ্ছে স্টেরয়েড থেরাপি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার ফের সামান্য অবনতি হল। এখন মূলত স্নায়ুর সমস্যাই দেখা গিয়েছে। পাঁচ জন বিশেষজ্ঞ গোটা বিষয়টি দেখছেন। হাসপাতাল সূত্রে খবর, বর্ষীয়াণ অভিনেতার স্টেরয়েডের ডোজ কমাতেই বেড়েছে তাঁর আচ্ছন্ন ভাব, কমেছে মস্তিষ্কের চেতনা। মঙ্গলবার অভিনেতার এমআরআই করা হয়েছে। চোখে পড়ার মতো কোনও অস্বাভাবিকতা তাতে ধরা পড়েনি। তবে তাঁর কোভিড এনসেফ্যালোপ্যাথি এখনও আছে। অর্থাৎ, মস্তিষ্কের কার্যকারিতা সন্তোষজনক নয়। এটা কবে ঠিক হবে তা এখনই বলতে পারছেন না চিকিৎসকেরা। গ্লাসগো কোমা স্কেল’ আগে ১১ পর্যন্ত উঠেছিল। তারপর সূচক অবশ্য নামতে শুরু করেছে। এ জন্য একটু তন্দ্রাচ্ছন্নও থাকছেন সৌমিত্র।

মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত খবর ছিল যে, ক্রমশই সুস্থ হয়ে উঠছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। আচ্ছন্ন ভাব থাকলেও চোখ খুলছেন তিনি। সেইসঙ্গে ডাকলে সাড়াও দিচ্ছেন বর্ষীয়ান এই অভিনেতা। এমনকী হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছিল, শরীরের অন্য সমস্যাও অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে তাঁর। কয়েক দিন ধরেই চলছে তাঁর মিউজিক থেরাপি। সেখানে তাঁকে রবীন্দ্রসঙ্গীত শোনানো হচ্ছিল। আচ্ছন্ন অবস্থাতেও মন দিয়েই তা শুনছেন ফেলুদা। ন্যাজাল ক্যানুলা মারফৎ অক্সিজেন দিয়েই তাঁর রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা ১০০ শতাংশ ছুঁইছুঁই হয়েছিল। প্রতি দিন ৪ থেকে ৬ লিটার অক্সিজেন দেওয়াও হচ্ছিল তাঁকে। রাইলস টিউব দিয়ে খাবার খাওয়ানোও হচ্ছিল তাঁকে। কিন্তু মঙ্গলবার সকাল থেকেই তাঁর বেশ কিছু স্নায়ুবিক সমস্যা দেখা যায়। আর তা নিয়েই উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে চিকিৎসকদের মধ্যে।

আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে নিউটাউন ক্লাবের পুজোর উদ্বোধন বালুরঘাটে, আবেগে ভাসছে শহর

অভিনেতার চিকিৎসক টিমের ক্রিটিকাল কেয়ার ইউনিট বিশেষজ্ঞ তথা মেডিকেল বোর্ডের প্রধান ডা. অরিন্দম কর জানিয়েছেন, ‘স্টেরয়েডদেওয়ার ফলে ওঁনার সাময়িক উন্নতি হয়েছিল। কিন্তু স্টেরয়েড বন্ধ করতেই সেই উন্নতি থমকে গিয়েছে। তাই আগামী দুদিন আবার তাঁকে স্টেরয়েড দেওয়া হবে। আশার কথা, বেশির ভাগ সময়ে অক্সিজেন সাপোর্ট আর দিতে হচ্ছে না সৌমিত্রবাবুকে। তাতে ওঁর অসুবিধাও হচ্ছে না। বাকি ‘প্যারামিটার’ সব ঠিকই আছে। স্নায়ুর কার্যকলাপ স্বাভাবিক করতে আবার স্টেরয়েড এবং ইমিউনোগ্লোবিউলিন দেওয়া হচ্ছে। যদি তাতে কাজ না হয়, তাহলে অন্যরকম কিছু ভাবতে হবে। তবে তাঁর কিডনি, যকৃৎ, হার্ট-সহ সমস্ত অঙ্গপ্রত্যঙ্গই ঠিকঠাক কাজ করছে।’

Related Articles

Back to top button
Close