fbpx
দেশহেডলাইন

কল্পতরু কেন্দ্র, এবার নেপাল সীমান্তের ঐতিহাসিক রেল সেতু উদ্বোধন করলেন মোদি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ফের কল্পতরু কেন্দ্র সরকার। শুক্রবার বিহারে কোশি রেলসেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। চলতি বছরের শেষেই বিহারে বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে একেবারে কল্পতরু অবতারে নরেন্দ্র মোদি। বিহারবাসীর মন জিততে আগেই একাধিক উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এবার কোশি রেলসেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী।

কোশি রেলসেতুর উদ্বোধনের ফলে ভারত-নেপাল সীমান্তের যোগাযোগ আরও সুগম হবে। শুক্রবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রেলসেতু উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। মোদি বলেন, এই সেতুর কাজ শেষ হলে বিহারের রেলপথ আরও সুগম হবে। পাশাপাশি, বাংলা ও পশ্চিম ভারতের মধ্যেও যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হবে সেকথাও মনে করিয়ে দেন তিনি।

এদিন এই রেলসেতু উদ্বোধনের সময় পূর্বতন কংগ্রেস সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন। সেইসময় রেলসেতুর বিস্তার করা হয়নি বলেও অভিযোগ করেন নরেন্দ্র মোদি। প্রসঙ্গত, ২০০৩-২০০৪ সালে এই সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়। কিন্তু তারপর থেকে এই প্রকল্পের কাজ আর এগোয়নি। বরং লকডাউনের সময় এই প্রকল্পে আরও গতি আসে। লকডাউনের জেরে কাজ হারিয়ে বাড়ি ফেরা বহু পরিযায়ী শ্রমিক, এই প্রকল্পে অংশ নেন। দ্রুত কাজ শেষ হল। যদিও বিরোধীদের কটাক্ষ, বিহারে ভোটের দামামা বেজে গিয়েছে। আর তাই দ্রুত এই প্রকল্পে কাজ শেষ করা হল।

আরও পড়ুন: ভারত-চিন সংঘর্ষের মাঝেই উপত্যকা সফরে গেলেন সেনা প্রধান নারাভানে

যদিও বিরোধীদের অনেকেরই কটাক্ষ, বিহারে ভোটের দামামা বাজতেই দ্রুত এই প্রকল্পে কাজ শেষ করা হল। বিহার ও নেপাল সীমান্তে ১.৯ কিলোমিটার লম্বা এই সেতুটি তৈরি হতে ব্যয় হয়েছে ৫১৬ কোটি টাকা। কয়েকদিন আগেই বিহারে সাতটি বড় শহর পরিকাঠামো প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করলেন প্রধানমন্ত্রী। সব ক’টি প্রকল্প মিলিয়ে বিহারে বিনিয়োগ হচ্ছে ৫৪১ কোটি টাকা। পাশাপাশি দ্বারভাঙায় বিহারের জন্য আরও একটি এইএমসের কাজ দ্রুত শুরু হবে বলে ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন প্রধানমন্ত্রী।

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close