fbpx
দেশহেডলাইন

ভারতের অগ্রগতিতে অদম্য অবদানের কথা উল্লেখ করে আম্বেদকরের জন্ম-জয়ন্তীতে শ্রদ্ধা প্রধানমন্ত্রীর

যুগশঙ্খ, ওয়েব ডেস্ক:আজ ১৪ এপ্রিল । ভারতীয় সংবিধানের জনক ডঃ বি আর আম্বেদকরের জন্ম-জয়ন্তী। আজ সমগ্র জাতির অগ্রগতি কথা স্মরণ করে বাবাসাহেব আম্বেদকরকে শ্রদ্ধা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রধামমন্ত্রী ট্যুইট করে লিখেছেন, ‘ডঃ বাবাসাহেব আম্বেদকরকে তাঁর জন্ম- জয়ন্তীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি। ভারতের অগ্রগতিতে তিনি অদম্য অবদান রেখেছেন। এটি আমাদের জাতির জন্য তাঁর স্বপ্ন পূরণের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করার একটি দিন’।

প্রধানমন্ত্রী আগের একটি ছোটো ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করে সেখানে আধুনিক ভারত গড়তে ডঃ আম্বেদকরের অবদান তুলে ধরেন।

সংসদ ভবনের লনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সহ রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ, উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা আম্বেদকরের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান। এছাড়াও সংসদ ভবনের সেন্ট্রাল হলে আম্বেদকরের প্রতিকৃতির সামনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বেশ কয়েকজন মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য।

রাষ্ট্রপতি একটি ট্যুইট করে বলেন, ‘ডঃ ভীমরাও আম্বেদকর মধ্যপ্রদেশের ১৮৯১ সালের ১৬ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেন। ভারতীয় সংবিধানের প্রধান স্থপতি, একজন অর্থনীতিবিদ, সমাজ সংস্কারক এবং একজন মানবাধিকার কর্মী ছিলেন তিনি। ভারতবর্ষের অস্পৃশ্যতার বিরুদ্ধে সারাজীবন যুদ্ধ করে গেছেন।’

১৮৯১ সালের ১৪ এপ্রিল সুবেদার রামজি শাকপাল এবং ভীমাবাইয়ের চতুর্দশ সন্তান হিসাবে মহুতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ডঃ ভীমরাও আম্বেদকর। ১৪ এপ্রিল, আমরা আম্বেদকর জয়ন্তী সহ এই দিনটিকে “সমতা দিবস” এবং “জ্ঞান দিবস” হিসাবে উদযাপন করি। আম্বেদকরের প্রথম জন্মবার্ষিকী ১৯২৮ সালের ১৪ এপ্রিল পুনে শহরে সদাশিব রণপিসে পালিত হয়েছিল এবং তারপর থেকে আম্বেদকর জয়ন্তীর অনুশীলন শুরু হয়েছিল।

ডক্টর ভীমরাও আম্বেদকর তার জীবদ্দশায় সাম্যের জন্য লড়াই করেছিলেন এবং এই কারণে তাকে সাম্য ও জ্ঞানের প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তিনি ১৪ এপ্রিল ১৮৯১ সালে মধ্যপ্রদেশের মহুতে জন্মগ্রহণ করেন।

Related Articles

Back to top button
Close