fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সিসিটিভি ফুটেজ দেখে বাইক চুরি চক্রের পান্ডাকে গ্রেফতার করল পুলিশ

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: সিসিটিভি ফুটেজ দেখে এক মোটর বাইক চুরি চক্রের এক পাণ্ডাকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃতের নাম সাদ্দাম সেখ। তার বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের মঙ্গলকোট থানার ঝিলু গ্রামে। মঙ্গলবার রাতে মঙ্গলকোট থানার পুলিশ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে। বুধবার ধৃতকে পেশ করা হয় কাটোয়া মহকুমা আদালতে। চুরি যাওয়া বাইক উদ্ধার ও চক্রের বাকিদের হদিশ পেতে তদন্তকারী অফিসার ধৃতকে ৭ দিন পুলিশ হেফাজতে নিতে চেয়ে আদালতে আবেদন জানান। বিচারক ধৃতকে ৫ দিন পুলিশ হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলকোটে বাস করেন রবিউল হক। গত সোমবার তিনি তাঁর দামি মোটর বাইক নিয়ে পালিশ গ্রামে ব্যাঙ্কের শাখা অফিসে পৌঁছান। ব্যাঙ্কের সামনে বাইকটি রেখে ব্যাঙ্কের কাজ মেটাতে যান। ব্যাঙ্ক  থেকে বেরিয়ে তিনি দেখেন বাইকটি আর সেখানে নেই। বাইকটি চুরি হয়েছে বুঝতে পেরে রবিউল হক ওই দিনই মঙ্গলকোট থানায় অভিযোগ জানান।

অভিযোগ পাওয়ার পরেই পুলিশ তদন্তে নেমে এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা শুরু করে। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে পুলিশ বাইক চোরকে শনাক্ত করে ফেলে। খোঁজ চালিয়ে পুলিশ জানতে পারে বাইক চুরির ঘটনায় জড়িত ওই দুষ্কৃতী মঙ্গলকোটের ঝিলু গ্রামের সাদ্দাম সেখ। এরপর মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে বাড়ি থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পুলিশের দাবি ধৃত যুবক বাইক চুরির কথা কবুল করেছে।

[আরও পড়ুন- পুকুরে স্মান করতে নেমে মৃত দুই বোন]

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে মঙ্গলকোট থানার পুলিশ চুরি যাওয়া বেশ কয়েকটি বাইক ও মোটরভ্যান উদ্ধার করেছে। এরপর ফের মঙ্গলকোট থানার পুলিশের হাতে ধরা পড়ল বাইক চুরি চক্রের আরও এক পাণ্ডা। সাদ্দাম সেখকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়ে পুলিশ চুরি যাওয়া বাইক ও চক্রের বাকি সদস্যদের খোঁজ শুরু করেছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close