fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রানিগঞ্জের রাস্তায় ধস, এলাকা ব্যারিকেড করল পুলিশ 

শুভেন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়, আসানসোল: পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোলের  রানিগঞ্জের ৬০ নং জাতীয় সড়কের শিশুবাগান মোড়ে রাস্তায় ধস নামার ঘটনায় শনিবার সাতসকালে গোটা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। এলাকার বাসিন্দাদের নিরাপত্তার কথা, ধসে গর্ত হয়ে যাওয়া অংশটি রানিগঞ্জ থানার পুলিশের তরফে ব্যারিকেড করে বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ধসের খবর পেয়েই আসানসোল পুরনিগমের মেয়র পারিষদ পূর্ণশশী রায় পুর ইঞ্জিনিয়ারদের নিয়ে এলাকায়  পৌঁছে যান। গোটা পরিস্থিতি দেখার পরে তিনি সেখান থেকেই জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে  কথা বলেন। পাশাপাশি তিনি পুরনিগমের পক্ষ থেকে ধস কবলিত ওই এলাকায় বালি ভরাট করে যা যা পদক্ষেপ নেওয়ার দরকার সেই কাজ শুরু করান।

পরে পূর্ণশশীবাবু বলেন, ৬০ নং জাতীয় সড়কের এই জায়গাটি নিয়মিত জল জমে যায়। শুক্রবার রাতের বৃষ্টিতে সেখানে একইভাবে জল জমা হয়েছিল। এটা আগেও এলাকায় জল জমার কথা জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষকে জানানো  হয়েছিল। তারা কিছু করেনি। তাই এখন আর তাদের উপরে ভরসা না করে আমরা নিজেরাই এই জায়গাটা মেরামত করে দেওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বালি ভরাটের কাজ শুরু হয়েছে। বাকি যা করার তা আমরা করব।

এদিন রানিগঞ্জের শিশুবাগান মোড় সংলগ্ন  বাসিন্দারা বলেন,  এদিন সাতসকালে এলাকার রাস্তার মোড়ে আচমকাই ধস নামে। সেই ধসে ৪ ফুট চওড়া ও ১০ ফুট গভীর মাটি বসে ধসে গর্ত তৈরী হয়। আর যেখানে ধস হয়েছে, সেখান দিয়েই ৬০ ন জাতীয় সড়ক থেকে শিশুবাগানে ঢোকার মেন রাস্তা। ঘটনার পরেই পুলিশ এসে রাস্তা ব্যারিকেড করে বন্ধ করে দেয়। ধস যেখানে হয়েছে, তার পাশের রয়েছে দোকান।

কিছুটা দূরেই রয়েছে বেশ কয়েকটি বাড়ি। এলাকার বাসিন্দারা আরও বলেন, রানিগঞ্জ এমনিতেই ধস প্রবল এলাকা বলে চিহ্নিত। তাই এদিনের ধসের ঘটনায় এলাকার মানুষদের মধ্যে আতঙ্ক হয়েছে। তবে পুরনিগম ও পুলিশের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে জানানো হয়েছে,  বেশ কিছুদিন আগে মাটির নিচ দিয়ে জলের পাইন লাইন বসানো কাজ হয়েছিল। সেই সময় এই জায়গার অংশটি ঠিকভাবে ভরাট না হওয়ায় এই ধসের ঘটনা হতে পারে। ধস নামার কারণে  আপাতত বন্ধ করা হয়েছে রাস্তার ওই অংশটি। অন্য কোনও কারণে এই ধস কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close