fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পুলিশ দিবসে প্রবীণ নাগরিকদের জন্য করা হল ‘সন্মান’ প্রকল্প

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: পুলিশ দিবসে প্রবীণ নাগরিকদের জন্য ‘সন্মান’ নামের বিশেষ প্রকল্প চালু করলো পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ ।মঙ্গলবার বর্ধমান পুলিশ লাইনে আয়োজিত বিশেষ অনুষ্ঠানে ‘সন্মান ’প্রকল্পের উদ্বোধন করেন আইজি বর্ধমান রেঞ্জ বি এল মিনা এবং জেলার পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় । অনুষ্ঠানে বর্ধমান পৌরসভার ৩৫ টি ওয়ার্ড এলাকার ৫০ জন প্রবীন নাগরিককে সম্বর্ধনা জানানোর পাশাপাশি তাদের হাতে ‘সন্মান ’প্রকল্পের কার্ড তুলে দেওয়া হয় । পুলিশের এই মহতি কর্মকাণ্ডকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জেলার প্রবীণ নাগরিকরা ।

‘সন্মান ’ প্রকল্প উদ্বোধন প্রসঙ্গে পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় বলেন ,সারা পৃথিবীতে প্রবীন নাগরিকের সংখ্যা বাড়ছে । বিশ্বায়নের যুগে দেখা যাচ্ছে অনেক বাড়িতেই প্রবীণ নাগরিকদের একই থাকতে হচ্ছে । বিশেষত নিউক্লিয়ার ফ্যামেলি সিস্টেমটা আমাদের সমাজে বেশি করে চলে আসার ফলে এই পরিস্থিতিটা অনেক বেশী প্রকট হয়ে উঠছে । তবুই ওই প্রবীণ নাগরিকদের উপস্থিতি , সহযোগীতা এবং তাঁদের সাহচর্য আমাদের একান্ত ভাবেই দরকার । আমাদের পূর্ব বর্ধমান জেলার মধ্যে বর্ধমান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটা শহর।তাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরনায় আমরা পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এমন প্রবীণ নাগরিকদের জন্য ’সন্মান’ প্রকল্প চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছি । প্রথম ধাপে শহর বর্ধমানের ৩৫ টি ওয়ার্ড এলাকার বাড়িতে একা থাকা ষাট উর্ধ্ব ৫০ জন প্রবীণ নাগরিককে চিহ্নিত করে তাদের ডেটাবেস তৈরি করা হয়েছে । ওই ৫০ জন প্রবীণ প্রবীণার হাতে সন্মান কার্ড তুলে দেওয়া হয়েছে ।

 

নির্দিষ্ট প্রবীণ প্রবীণার ছবি ,নাম , ঠিকানা ও মোবাইল ফোন নম্বর তাতে লেখা থাকবে । এছাড়াও ওই কার্ডে জেলা পুলিশের একটা নির্দিষ্ট ফোন নম্বরও দেওয়া থাকবে । তবে প্রবীণদের সুবিদার্থে এই সন্মান প্রকল্পের বিষয়টি আ্যাপ নির্ভর করা হয়নি। ম্যানুয়াল রাখায়েছে । যেকোন রকম জরুরি ডাক্তারি পরিষেবা পাওয়া কিংবা ল-এ্যন্ড অর্ডার প্রবলেব সৃষ্টি হওয়া অথবা যদি কোন প্রমোটার ওই প্রবীণ প্রবীণাদের বাড়ি ছাড়ার হুমকি দেয় তবে তারা নির্দিষ্ট ওই ফোন নম্বারে ফোন করবেন । ফোন পেলেই জেলা পুলিশ তাদের সর্বত ভাবে সহযোগীতা করবে । পুলিশ সুপার বলেন ,জেলার এই সকল প্রবীন নাগরিকদের সন্মান জানাতে পেরে আদতে পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ সন্মানিত হল। জেলার জামালপুর থানার মহিলা পুলিশ কর্মীদের জন্য থানা চত্ত্বরে যে নতুন বিশ্রামাগার তৈরি হয়েছে সেটিরও এদিন উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার ।

Related Articles

Back to top button
Close