fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বর্ধমানে পুকুর থেকে টাকা মেলার ঘটনায় জলাশয় ঘিরে রেখেছে পুলিশ, চলছে কড়া নজরদারি

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: বর্ধমানে পুকুর থেকে টাকা মেলার ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য রয়েছে এলাকায়। ইতিমধ্যেই ওই পুকুরটিকে ঘিরে রেখেছে পুলিশ। পুকুরে কাউকে নামতে দেওয়া হচ্ছে না।

প্রসঙ্গত, বর্ধমানে পুকুরে ডুব দিয়ে হাঁতরালেই মিলছে ৫০০, ২০০০ টাকার নোট, কয়েন ও গহনা। এমন খবর ছড়িয়ে পড়তেই শুক্রবার তোলপাড় পড়ে যায় পূর্ব বর্ধমানের মেমারি ২ ব্লকের কুচুট পঞ্চায়েতে বড়মশাগোড়িয়া গ্রামে। টাকা গহনা পাওয়ার জন্য সকাল থেকে প্রচুর মানুষ ওই পুকুরে নেমে পড়েন। খবর পেয়ে বিকালে মেমারি থানার পুলিশ ওই পুকুর পাড়ে পৌঁছে সব লোকজনকে হটিয়ে দেয়। এরপর পুলিশই পুকুরে লোক নামিয়ে জাল ফেলে খোঁজ চালানো করায়। তখনও উদ্ধার হয় কিছু টাকা। ঘটনার রহস্য উদ্ধারে জন্য পুলিশ স্থানীয়দের ওই পুকুরে নামায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

কুচুট পঞ্চায়েতের বড়মশাগড়িয়া গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিছনে রয়েছে পুকুরটি। এসডিপিও আমিনুল ইসলাম খান বলেন, “পুকুরে ডুব দিয়ে হাঁতরালে টাকা মিলছে এমন খবর গত দু -তিন দিন ধরেই রটছে। শুক্রবার সকাল থেকে ওই পুকুরে প্রচুর লোক নেমে পড়ে। এই খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায় পুকুরে জাল ফেলানো হলে কিছু টাকা পাওয়া যায়। সেগুলি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। পুকুরে কিভাবে টাকা এল খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ”

আরও পড়ুন: কুমারী পুজোয় এবছর দর্শনার্থীদের জন্য বন্ধ থাকবে বেলুড় মঠের দরজা!

বড়মশাগড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা সেখ মনসুর আলি, সোলেমান মল্লিক প্রমুখরা বলেন ,কিছুদিন আগে পুকুর পড়ের বাসিন্দারা পুকুরে টাকা ভাসতে দেখেন। তার পর থেকেই লোকের মুখে মুখে রটে যায় পুকুরে ডুবদিয়ে হাঁতরালেই মিলছে ৫০০,২০০০,১০০,৫০ ও ২০ টাকার নোট ও কয়েন। এছাড়াও সোনা ও রুপোর গহনাও মিলছে বলে অনেকে বলেন। এই খবর রটে যায় গোটা গ্রামজুড়ে। টাকা ও গহনা পাওয়ার জন্য এদিন সকাল থেকে প্রচুর মানুষ ওই পুকুরে নেমে পড়েন। খবর পেয়ে বিকালে মেমারি থানার পুলিশ পুকুর পাড়ে পৌঁছে সবাইকে পুকুর থেকে তুলে দেয়। এরপর পুলিশ পুকুরে জাল ফেলায়। তাতে কিছু টাকা উদ্ধর হলে পুলিশও অবাক হয়ে যায়।
সোলেমান মল্লিক বলেন, পুকুরে টাকা কিভাবে এল তার তদন্তের জন্য পুলিশ অফিসারা পুকুরে কাউকে নামতে নিষেধ করে দিয়ে গেছে। নির্দেশ অমান্য করে কেউ পুকুরে নামলে তাকে গ্রেফতার করা হবে বলেও পুলিশ জানিয়ে দিয়েছে। পুলিশের লোকজন পুকুরে নজরদারি চালাচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close