fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

শালবনির গড়মাল অঞ্চল অফিসে চুরি এলাকায় চাঞ্চল্য তদন্ত শুরু করল পুলিশ 

সুদর্শন বেরা, পশ্চিম মেদিনীপুর: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার  শালবনি ব্লকের আট নম্বর গড়মাল অঞ্চল অফিসে চুরির ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। সোমবার সকালে স্থানীয় বাসিন্দারা দেখে অঞ্চল অফিসের উপরে লোহার গেট ভাঙা অবস্থায় রয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা ফোন করে গড়মাল গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নিতাই  ভুঁইঞাকে বিষয়টি জানায়। তিনি খবর পেয়ে অঞ্চল অফিসে ছুটে আসেন। তিনি ফোন করে  শালবনি ব্লকের পিড়াকাটা পুলিশ ফাঁড়ির আধিকারিকদের বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ আধিকারিকরা ও পুলিশকর্মীরা। গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান নিতাই ভুঁইয়া জানান, গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসের দোতালার লোহার গেট ভেঙে ভেতরে ঢুকে সচিবের ঘরে থাকা আলমারি ভেঙে দিয়েছে আর আলমারিতে থাকা নগদ কিছু টাকা, দুটি মোবাইল, বিভিন্ন কাগজপত্র যেমন দুষ্কৃতীরা চুরি করে নিয়ে গেছে, তেমনি চুরি করে নিয়ে গেছে একটি কম্পিউটার ও দুটি ল্যাপটপ। তিনি পুলিশকে লিখিতভাবে বিষয়টি জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ, তদন্তে জীবনতলা থানার পুলিশ

পীড়াকাটা ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তদন্তের কাজ শুরু করেছে। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। গড়মাল গ্রাম পঞ্চায়েতে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠ হলেও সংরক্ষিত আসনে বিজেপি প্রার্থী জয় লাভ  না করায় তৃণমূল কংগ্রেসের সংরক্ষিত আসনের জয়ী প্রার্থী প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হয়ে কাজ করছেন। সোমবার ওই ঘটনার ফলে পঞ্চায়েত অফিসের কাজকর্ম হয়নি। প্রধান আরও জানান যে, প্রচুর গুরুত্বপূর্ণ কাগজগুলি দুষ্কৃতীরা চুরি করে নিয়ে গেছে। তবে কেন কি কারণে ওই চুরির ঘটনা ঘটেছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে অঞ্চল প্রধান জানান, রবিবার গভীর রাতে সম্ভবত দুষ্কৃতীরা  চুরির ঘটনাটি ঘটিয়েছে। পঞ্চায়েত অফিসে চুরির ঘটনাটি শালবনি ব্লকের বিডিওকে জানানো হয়েছে বলে প্রধান জানান। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য তদন্ত শুরু করেছে। সেই সঙ্গে কারা ওই ঘটনায় জড়িত তা চিহ্নিত করার জন্য তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে।তবে গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয় চুরির ঘটনায় গড়মাল অঞ্চল জুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

Related Articles

Back to top button
Close