fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

খড়গ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর সভা করার ফল, জেলা পরিষদের সভাধিপতির নিরাপত্তারক্ষী তুলে নিল পুলিশ

কৌশিক অধিকারী, বহরমপুর: গত ৮ই নভেম্বর মুর্শিদাবাদের খড়গ্রামে সদ্য প্রয়াত জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষের স্মরণ সভা করার ফল মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদের সভাধিপতি মোসারফ হোসেনের নিরাপত্তারক্ষী তুলে নিল জেলা পুলিশ প্রশাসন। দুইজন নিরাপত্তারক্ষীকে ক্লোজ করা হয়েছে জেলা পুলিশ লাইনে বলে সূত্রে খবর।

মুর্শিদাবাদে শুভেন্দু অধিকারীকে রাজনৈতিক জমি দিতে গিয়ে চরম আক্রমণের মুখোমুখি হতে চলেছেন জেলা পরিষদের সভাধিপতি মোশারফ হোসেন। তিনদিন আগেই শুভেন্দু অধিকারীকে মুর্শিদাবাদে নিয়ে এসে তৃণমূলের ব্যানার ছাড়াই দলীয় নেতার স্মরণসভা করেছিল মোশারফ। তৃণমূলকেই চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন তিনি। মঙ্গলবার সভাধিপতি হিসেবে যে দুজন সরকারী নিরাপত্তারক্ষী পেতেন তাদের প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। তবে সভাধিপতি জানিয়েছেন তার দুজন নিরাপত্তা কর্মীকে জেলা পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে বলে তিনি জানতে পেরেছেন। শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে গত ৮ই নভেম্বর খড়গ্রামে প্রয়াত জেলাপরিষদের কর্মাধ্যক্ষের স্মরণ সভা করতে গিয়ে যে দল তথা সরকারের রোষের মুখে পড়েছেন তা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। তবে তিনি যে কোন চাপের কাছে নতি স্বীকার করবেন না তা এখনও পর্যন্ত জোড় গলায় বলছেন।

মঙ্গলবার দিনভোর কলকাতায় গিয়ে দফায় দফায় রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করেন জেলা তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্বের একাংশ। কীভাবে সভাধিপতিকে মোকাবিলা করা হবে সেই বৈঠকে তার নীলনকশা তৈরী হয়। তৃণমূল সূত্রে জানা যাচ্ছে সভাধিপতির আর্থিক ক্ষমতা সিজ্ করা হচ্ছে। এই বিষয় নিয়ে মুখ খুলেছেন মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদে সভাধিপতি মোশারফ হোসেন। বুধবার তিনি সাংবাদিক বৈঠকে জানান, আমি যখন  জনপ্রতিনিধি হয়েছি তখন সিকিউরিটি নিয়ে জনপ্রতিনিধি হয়নি, মানুষ আমাকে জনপ্রতিনিধি করেছে। মুর্শিদাবাদ জেলার মানুষের প্রতি আমার ভরসা বিশ্বাস ভালোবাসা আছে, আগামি দিনও যদি সিকিউরিটি না পায়, মুর্শিদাবাদ জেলার মানুষ আমাকে নিরাপত্তা দেবে।

Related Articles

Back to top button
Close