fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

রাজনৈতিক অস্থিরতা! সামরিক অভিযানের ঘোষণা পুতিনের

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যেই বড়সড় ঘোষণা করলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বৃহস্পতিবার সকালেই রাশিয়ার তরফ থেকে ইউক্রেন মিলিটারি অপারেশনের ঘোষণা করলেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, কোনও ভাবেই যুদ্ধ এড়ানো সম্ভব নয়।

জানা গেছে, ইউক্রেনের ডনবাসে ইতিমধ্যেই সেনা অভিযান শুরু করে দিয়েছে রাশিয়া। মিসাইল হামলা শুরু হওয়ায় ইউক্রেনের সমস্ত বিমান পরিষেবা বাতিল হয়েছে। বিপর্যস্ত মোবাইল পরিষেবা। ইউক্রেনে জারি জরুরি অবস্থা।

বৃহস্পতিবার ভোরে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানান, ‘আমি সামরিক অভিযানের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ ইউক্রেনের বাহিনীকে অস্ত্র ছাড়ার বার্তা দেওয়ার পাশাপাশি আমেরিকা-সহ পশ্চিমী দুনিয়াকে পুতিন হুঁশিয়ারি দেন, যে দেশ সেই ‘সামরিক অভিযানে’ হস্তক্ষেপ করবে, তাদের ফল ভুগতে হবে। তিনি অভিযোগ করেন, ইউক্রেনকে ন্যাটোয় যোগদান থেকে বিরত করার যে দাবি করছিল ক্রেমলিন, তাতে কোনও ভ্রূক্ষেপ করেনি আমেরিকা এবং বন্ধু রাষ্ট্রগুলি। সেই পরিস্থিতিতে ‘সামরিক অভিযানের’ ঘোষণা করলে ইউক্রেনকে দখল করার কোনও অভিপ্রায় নেই বলে দাবি করেছেন তিনি।

পুতিন এও জানান যে, রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ কোনওভাবেই এড়ানো সম্ভব নয়। ইউক্রেন বাহিনীর উচিত অস্ত্রশস্ত্র ফেলে উচিৎ আত্মসমপর্ণ করা। ইউক্রেনকে দখল করা রাশিয়ার লক্ষ্য নয়। বরং ডনবাসকে রক্ষা করতেই এই অভিযান চালানো হয়েছে।”

অন্যদিকে, রাষ্ট্রসংঘের বৈঠকে ইংল্যান্ডের তরফে বলা হয় যে, ‘গোটা বিশ্ব শান্তি চাইলেও, রাশিয়া কর্ণপাত করতে রাজি নয়’।

 

Related Articles

Back to top button
Close