fbpx
আন্তর্জাতিকআমেরিকাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট প্রকাশ: হত্যা করা হয়েছে ফ্লোয়েডকে, বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আন্দোলন অব্যাহত আমেরিকায়

নিউইয়র্ক, (সংবাদ সংস্থা) : হুমকি, কার্ফু উপেক্ষা করেই বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আন্দোলন অব্যাহত আমেরিকায়। তার মধ্যেই সামনে এসেছে ৪৬ বছর বয়সী কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের দেহের সরকারি ময়নাতদন্তের রিপোর্ট। সেখানে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, জর্জ ফ্লয়েডকে ঘাড়ে তীব্র আঘাতের দ্বারা হত‍্যা করা হয়েছে। এই হত্যাকান্ডকে ‘হোমিসাইড’ বলে অভিহিত করা হয়েছে।

মিনিয়াপলিসের হেনেপিন কাউন্টি মেডিকেল এক্সামিনার কর্তৃক প্রকাশিত ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘পুলিশের আঘাতে কার্ডিওপালমোনারি অ্যারেস্টের কারণে মারা গেছেন ৪৬ বছরের জর্জ ফ্লয়েড। তাঁকে হত‍্যা করা হয়েছে। মৃত্যুর পদ্ধতি অভিপ্রায় বা নিন্দনীয়তা সম্পর্কিত আইনী সংকল্প নয়।’

এর পরেই জর্জ ফ্রয়েডের হত্যায় অভিযুক্ত মিনেসোটার মিনিয়াপোলিসে ডেরেক শভিন নামের ওই শেতাঙ্গ পুলিশের চরম শাস্তির দাবিতে আবারও রাস্তায় নামেন আন্দোলনকারীরা। কার্ফু উপেক্ষা করেই বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে আমেরিকার বিভিন্ন প্রদেশ। ঘটে একাধিক ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগের ঘটনা।পরিস্থিতি সামলাতে একাধিক প্রদেশে নামানো হমেছে ‘ন্যাশনাল গার্ড’।

জানা গিয়েছে, সোমবার  সন্ধের পর থেকে ঘটনাস্থল মিনিয়াপোলিসের প্রায় সব রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠি, রাবার বুলেট, কাঁদানে গ্যাসের শেলও ফাটিয়েছে পুলিশ।জানা গিয়েছে গত সাত দিনের বিক্ষোভে এখনও পর্যন্ত ২ হাজারেরও বেশি আন্দোলনকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close