fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সরকারি কাজ নিয়ে বিডিওর নামে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট, পুলিশের কাছে মুচলেকা দিলেন তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের নেতা

শুভেন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়, আসানসোল: পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল মহকুমার রানিগঞ্জ ব্লকের ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক বা বিডিওর নামে সরকারি কাজ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে অপ্রাসঙ্গিক মন্তব্য ও কুৎসা ছড়ানোর অভিযোগ উঠলো ব্লকের এগরা গ্রাম পঞ্চায়েতের নতুন এগরার বাসিন্দা তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসির  ইউনিট নেতা বিবেক মন্ডলের বিরুদ্ধে। শনিবার তা জানতে পেরে রানিগঞ্জ থানায় লিখিত  অভিযোগ জানান রানিগঞ্জের বিডিও অভিক বন্দোপাধ্যায়। এই কথা জানাজানি হওয়ার পরে শাসক দলের অন্দর ও প্রশাসনিক মহলে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

 বিডিওর করা লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে এদিনই রানগঞ্জ থানার বল্লভপুর ফাঁড়ির পুলিশ বিবেক মন্ডলকে ডেকে পাঠায়। বিবেকবাবু নিজের ভুল স্বীকার করে নিয়ে পুলিশের সঙ্গে  লিখিতভাবে মুচলেখা দেন। তাতে তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতে এইভাবে বিডিওর নামে সরকারি কাজ নিয়ে ভুলের কথা স্বীকার করে নেন । এই প্রসঙ্গে বিডিও বলেন, আমি একজন  সরকারি আধিকারিক হিসাবে সরকারের নিয়ম অনুযায়ী সকল পরিষেবা আসল উপভোক্তা বা মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে দায়বদ্ধ। এক্ষেত্রে তার এই কাজের উপরে  মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সদা সর্বদা নজর রয়েছে। বিবেক মন্ডল সোশ্যাল মিডিয়ায় যেসব মন্তব্য করেছেন তা ভাইরাল হওয়ার কারণেই আমি পুলিশকে বিষয়টি জানিয়েছি। আমার মনে হয়েছে এটা পুলিশকে জানানোর।
বিবেক মন্ডল পুলিশের কাছে মুচলেকা দেওয়ার পরে বলেন, আমি বুঝেছি আমার সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভাবে লেখা ও মন্তব্য করা উচিত হয়নি ।
আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভার বিধায়ক তথা আসানসোল দূর্গাপুর উন্নয়ন পর্ষদ বা আড্ডার    চেয়ারম্যান তাপস বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন এই প্রসঙ্গে বলেন, যে বা যারা সরকারি কাজের নামে কুৎসা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরোধিতা করছেন, তারা আর যেই হোক দলের কেউ হতে পারে না। যে এটা করেছেন, তিনি তার ভুল থেকে নেবেন এটা আশা করি।
রানিগঞ্জ থানার পুলিশ জানায়, বিডিও লিখিত অভিযোগ দায়ের করায়, ঐ ব্যক্তিকে ডেকে পাঠানো হয়েছিলো। তিনি ভুল করেছেন বল,  মুচলেকা দিয়েছেন। তাকে সতর্কও করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close