fbpx
দেশহেডলাইন

শিয়রে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন! গোপালকৃষ্ণ গান্ধী ও ফারুক আবদুল্লাহর নাম প্রস্তাব মমতার

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্ক: ঘোষিত হয়েছে ১৬ তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। ভোটগ্রহণ হবে ১৮ জুলাই। আর ভোটের গণনা হবে ২১ জুলাই। এবারের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে মোট ৪৮০৯ জন জনপ্রতিনিধি অংশ নেবেন। এর মধ্যে যেমন পার্লামেন্টের দুই কক্ষের সাংসদরা রয়েছেন তেমনি বিভিন্ন প্রাদেশিক বিধানসভার জনপ্রতিনিধিরাও রয়েছেন। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দেওয়ার জন্য নিজ দলের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের কোনওভাবেই চাপ দেওয়া বা হুইপ জারি করা যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার রাজীব কুমার।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচন ঘিরে সরগরম রাজধানী। ইতিমধ্যেই ১৪ জুন দিল্লি উড়ে গেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ভারতের বিজেপিবিরোধী ১৭টি দল বুধবার বৈঠকে সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোনও একজনকে ‘সর্বসম্মত’ রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী করা হবে। তবে প্রার্থী হিসেবে কাকে মনোনীত করা হবে, তা নিয়ে এখনও জল্পনা রয়েছে।

তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গোপালকৃষ্ণ গান্ধী ও ফারুক আবদুল্লাহর নাম প্রস্তাব করেছেন বলে জানা গেছে। তবে মমতা নিজে প্রকাশ্যে জানিয়েছেন এনসিপি নেতা শারদ পাওয়ারের কথা। দিল্লির কনস্টিটিউশন হলে বিরোধীদের বৈঠক শেষে মমতা বলেন, ‘আজকের বৈঠকে অনেক দল যোগ দিয়েছে। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সর্বসম্মতভাবে একজনকে প্রার্থী করা হবে। সকলে তাকে সমর্থন জানাবে। আমরা বাকিদের সঙ্গেও কথা বলব। আবারও একসঙ্গে আলোচনায় বসব। ‘

বৈঠকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসেবে ‘সর্বসম্মতিতে’ এনসিপি নেতা শারদ পাওয়ারের নাম প্রস্তাব করা হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান মমতা। এ প্রসঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বৈঠকে সর্বসম্মতিতে শারদ পাওয়ারের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে। উনি চাইলে আমরা সকলে তাকে সমর্থন করব। পাওয়ার রাজি না হলে সর্বসম্মতভাবে অন্য একজনকে প্রার্থী করা হবে। ‘

তবে পিটিআইয়ের খবরে বলা হয়, বৈঠকের পর আরএসপির এন কে প্রেমচন্দ্রন জানান, রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসেবে মহাত্মা গান্ধীর পৌত্র গোপালকৃষ্ণ গান্ধী ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহর নাম প্রস্তাব করেছেন মমতা।

Related Articles

Back to top button
Close