fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সন্তান সম্ভবা মহিলা লকডাউনের জেরে একা আটকে মহারাষ্ট্রে

পার্থ সামন্ত, তারকেশ্বর: দেশ জুড়ে চলছে তৃতীয় দফার লকডাউন। প্রথম দফার লকডাউন শুরু হয়ে ছিল ২৫ শে মার্চ। ২৪ শে মার্চ রাত্রি আটটায় প্রধানমন্ত্রী তিন সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেন। এই লকডাউনের কবলে ওষ্ঠাগত হয়েছে পরিযায়ী শ্রমিকদের জীবন। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সেই সব খবর দেখা যাচ্ছে। কোথায় কয়েকশো মাইল হেঁটে বাড়ি ফিরছেন তাঁরা।

এই রকম এক করুন পরিস্থিতির শিকার পার্থ ঘোষ ও উর্মিলা ঘোষ ।  বর্তমানে উর্মিলা দেবী আছেন মহারাষ্ট্রের থানে তে। আর পার্থ বাবু আছেন পশ্চিমবঙ্গের হুগলী জেলার তারকেশ্বরে। পার্থ বাবুর বাড়ি তারকেশ্বরের চাঁপাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের বিনগ্রামে। পেশায় সোনার কারিগর পার্থ বাবু প্রায় ১৬ বছর আগে কর্মসূত্রে মহারাষ্ট্রের থানে চলে যান। পার্থ বাবু জানান ওনার স্ত্রী মা হতে চলেছেন। ডাক্তার এক্সপেক্টেড ডেলিভেরি ডেট দিয়েছেন জুলাই মাসের ৬ তারিখ। একার পক্ষে কাজ সামলে স্ত্রীর দেখাশোনা করার অসুবিধার কথা ভেবে বাড়িতে ও শশুড় বাড়িতে কথা বলেন দম্পতি। দুই পরিবারের কথা হওয়ার পর ঠিক হয় পার্থ বাবুর শাশুড়ি থানে যাবেন মেয়ের দেখাশোনা করতে। তিনি জানান শাশুড়ি মা কে সাথে নিয়ে যাওয়ার জন্য বাড়ি ফেরেন ২০ শে মার্চ। শাশুড়ি মা কে নিয়ে যাওয়ার জন্য ২৭ শে মার্চের ট্রেনের টিকিট করিয়েছিলেন বলে দেখান। কিন্তু লকডাউনে বাতিল হয়েছে ট্রেন।

আরও পড়ুন: পালা পার্বন থেকে শুরু করে বন্ধ বিয়ে, আর্থিক সঙ্কটে ভুগছে মৃৎশিল্পীরা

পার্থ বাবু বলেন এই অবস্থায় স্ত্রীর নানা রকম শারীরিক সমস্যা দেখা দিচ্ছে। তিনি বলেন একার পক্ষে ডাক্তার দেখানো সম্ভব হয়ে উঠছে না। রান্না করা, জামা কাপড় কাচা সব কাজই স্ত্রীকে করতে হচ্ছে। পার্থ বাবুর আশঙ্কা যদি কোন কারনে ডেলিভারি ডেটের আগেই বাচ্চা হওয়ার সম্ভবনা দেখা দেয় তাহলে কি হবে। স্ত্রী উর্মিলা দেবীর কাছে ফিরতে চেয়ে দ্বারস্থ হয়েছেন পঞ্চায়েত অফিস ও বিডিও অফিসে। পার্থ বাবু বলেন আমার দরখাস্ত পাওয়ার পরেই চাঁপাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েত দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করে বিডিও অফিসে চিঠি করে দেন, কিন্তু এখনও কোন উপায় হলো না। তিনি বলেন প্রধানমন্ত্রী যদি কয়েক দিন সময় দিয়ে লকডাউনের ঘোষণা করতেন তাহলে হয়তো ধার দেনা করে বিমানের টিকিট কেটে শাশুড়ি মা কে নিয়ে চলে যেতাম থানে। পার্থ বাবু বলেন জানি না কি হবে, কবে স্ত্রীর কাছে যেতে পারবো। এই ব্যাপারে তারকেশ্বর বিডিও অফিস থেকে বলা হয় অনলাইনে আবেদন করে রাজ্যের বাইরে কি ভাবে যেতে হবে। এবং পুনরায় রাজ্যে ঢুকতে অনলাইনে কি ভাবে আবেদন করতে হবে সেই ব্যাপারে ওনাকে সহায়তা করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close