fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

শহিদ কানহ মুর্মুর মূর্তি ভাঙা নিয়ে জোরালো প্রতিবাদ, জানালেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান:  পুরুলিয়ায় আদিবাসী বীর শহীদ কানহ মুর্মুর মূর্তি ভাঙার ঘটনায় নাম জড়িয়েছে বিজেপি নেতা বৈদ্যনাথ মান্ডির বলে অভিযোগ। বিজেপি নেতার এই কীর্তি জানার পরেই বেজায় চটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলা সহ গোটা রাজ্যের আদিবাসীরা। শহীদ কানহ মুর্মুর মূর্তি ভাঙার ঘটনার প্রতিবাদে এবার শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসও আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিল। সোমবার বর্ধমানে সাংবাদিক বৈঠক করে সেই কথাই জানালেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা পূর্ব  বর্ধমান জেলা তৃণমূলের সভাপতি স্বপন দেবনাথ।

 

 

এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ছাড়াও জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কো-অর্ডিনেটর দেবু টুডু, রাজ্য নেতা উজ্জ্বল প্রামানিক সহ জেলার অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন। স্বপন দেবনাথ এদিন বলেন, শহীদ কানহ মুর্মুর মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে এই জেলা সহ সারা রাজ্যের তৃণমূল কর্মীরা সোচ্চার হবেন। দেবু টুডু বলেন, “বিজেপি নেতা বৈদ্যনাথ মাণ্ডি আদিবাসীদের পূজনীয় কানহ মুর্মুর মূর্তি ভেঙে স্বৈরাচারী মনোভাবের পরিচয় দিয়েছে।  এই ঘটনার প্রতিবাদে গোটা জুলাই মাস জুড়ে পূর্ব বর্ধমান জেলার প্রতিটি ব্লকে ব্লকে প্রতিবাদ সভা হবে।  কারণ বিজেপি  আদিবাসীদের আত্মসম্মানে আঘাত দিয়েছে। এর আগেও বিজেপির লোকজন কলকাতায় বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে। একের পর এক বাংলার মনীষী ও শহীদের মূর্তি ভেঙে দিয়ে বিজেপি বাংলার কৃষ্টি, সংস্কৃতিকে ধ্বংস করে দিতে চাইছে।

 

মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ  এদিন সাংবাদিক বৈঠকে ঘোষনা করেন যে,‘শারদোৎসবের আগেই আদিবাসীদের জন্য ভর্তুকি যুক্ত সস্তায় শাড়ি বিক্রির ৪টি কাউণ্টার পূর্ব বর্ধমান জেলায় চালু করা হবে।পাশাপাশি গোটা রাজ্যে এমন ২৬ টি কাউন্টার চালু করা হবে বলে মন্ত্রী এদিন ঘোষনা করেন।

Related Articles

Back to top button
Close