fbpx
আমেরিকাহেডলাইন

আমেরিকায় জর্জ ফ্লয়েডের হত্যার প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ছে গোটা বিশ্বে

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: কয়েকদিন ধরেই বিক্ষোভের আগুনে জ্বলছে আমেরিকা। জর্জ ফ্লয়েডের হত্যার প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ছে গোটা বিশ্বে। ইতিমধ্যেই বিক্ষোভ পৌঁছে গিয়েছে জার্মানি, ফ্রান্স, ব্রিটেন, নিউজিল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, ডেনমার্ক, গ্রিস, দক্ষিণ আফ্রিকাতেও। জার্মানি, ব্রিটেন ও কানাডা সরকারও আমেরিকায় বর্ণবাদের নিন্দা করার পাশাপাশি যেভাবে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের ওপর পুলিশি আক্রমণ নেমে আসছে, তার কড়া সমালোচনা করেছে। রাষ্ট্রপুঞ্জও মার্কিন প্রশাসন ও পুলিশের অকারণ, মাত্রাছাড়া শক্তিপ্রয়োগের নিন্দা করেছে। শুনছেন না কেবল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

বুধবার নিউ ইয়র্কে বিক্ষোভ ঠেকাতে রাত আটটা থেকে কার্ফু জারি হয়। তারপর শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ মিছিলে লাঠি, রাবার বুলেট, কঁাদানে গ্যাস নিয়ে চড়াও হয় পুলিশ। অসংখ্য লোক গ্রেপ্তার হন। অথচ মিছিলের স্লোগান ছিল— মাথার ওপর হাত তুলেই হঁাটছি, গুলি চালিও না!‌ বুধবার রাতে বিক্ষোভ হয়েছে ওয়াশিংটন ডিসি, ওকল্যান্ড, শিকাগো, মায়ামি, ট্যাম্পা, অরল্যান্ডো শহরেও।

আরও পড়ুন: রাজ্যে ১০০ দিনের কাজ নিয়ে ব্যাপক দুর্নীতি হচ্ছে, অভিযোগ দিলীপ ঘোষের

রাষ্ট্রপুঞ্জের মানবাধিকার বিষয়ক হাই কমিশনের প্রধান মিশেল ব্যাশেলে বুধবার বলেন, কৃষ্ণাঙ্গ–মার্কিনিদের নিগ্রহ বন্ধ করার যে দাবি, যে জনমত জোরদার হয়েছে, মার্কিন প্রশাসনের উচিত তাতে কান দেওয়া। শুধু পুলিশি নিগ্রহই নয়, মার্কিন সমাজে কৃষ্ণাঙ্গদের যে সামগ্রিক অবমাননা, তা বন্ধ হওয়া দরকার। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, বর্ণবিদ্বেষ এবং বর্ণবাদী সন্ত্রাসের কোনও জায়গা নেই। জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেল এক মুখপাত্র মারফত বলেছেন, আমেরিকাতে কী ঘটছে, নজর রাখছে জার্মানি।

Related Articles

Back to top button
Close