fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নন্দীগ্রামে তৃণমূলের ত্রাণ দুর্নীতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ অব্যাহত

রাজকুমার আচার্য, নন্দীগ্রাম (পূর্ব মেদিনীপুর): বেশ কয়েকদিন ধরেই নন্দীগ্রামের বিভিন্ন জায়গায় তৃণমূলের ত্রাণ দুর্নীতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ চলছে। বৃহস্পতিবারও একই কারণে নন্দীগ্রামে বিক্ষোভ, পথ অবরোধ অব্যাহত।  নন্দীগ্রাম ১ নম্বর ব্লকের ভেকুটিয়া ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে জন সাধারণের একটি বিশাল মিছিল এসে বিক্ষোভ দেখায়। তাদের দাবি এলাকার জন প্রতিনিধি আমফান ঝড়ের ক্ষতিপূরণ দুর্নীতিতে যুক্ত, অবিলম্বে গ্রেপ্তার করতে হবে। বিশাল বিক্ষোভকারীদের সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পৌঁছায়। গ্রাম পঞ্চায়েতের তরফে জানানো হয়েছে, জন প্রতিনিধিকে শোকোজ করা হয়েছে।
ব্লক শহর নন্দীগ্রামের বিডিও অফিসেও এদিন প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণের দাবিতে এসইউসি দলের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ দেখানো হয়। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় আজও ত্রাণ দুর্নীতির বিরুদ্ধে পথে নামে  সাধারণ মানুষ।  বিভিন্ন এলাকা থেকে বিডিওর কাছে ভুরিভুরি অভিযোগ জমা পড়েছে। নন্দীগ্রাম ১ নম্বর ব্লকের বিডিও সুব্রত মল্লিক বলেন,” প্রথম দফার যারা ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন সেই তালিকায় কিছু  ত্রুটি  রয়েছে। দ্রুত সেই ত্রুটি সংশোধন করে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা ক্ষতিপূরণ পাবেন।”
সম্প্রতি আমফান ঝড়ে নন্দীগ্রামে ব্যাপক  ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সরকারিভাবে জানানো হয়েছিল সরকারি চাকরি করেন অথবা পাকা বাড়ি তাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে না। মাটির বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হলে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। কিন্তু ক্ষতিপূরণের তালিকা প্রকাশের পর দেখা যায় অসংখ্য পাকা বাড়ির মালিকদের নাম রয়েছে ক্ষতিপূরণের তালিকায়। নাম রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের অনেক নেতা নেত্রীর। যাদের প্রকৃত কোনও ক্ষতি হয়নি। অথচ প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত বহু মানুষ ক্ষতিপূরণ পায়নি। প্রশাসনিকভাবে  জানানো হয়েছে প্রথম দফায় যারা টাকা পেয়েছেন তারা অনেকেই সরকারি নিয়ম মাফিক টাকা পাওয়ার কথা নয়, তাদের কাছ থেকে টাকা ফেরানোর কাজও শুরু করেছে প্রশাসন।

Related Articles

Back to top button
Close