fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সালানপুরে কাজের দাবিতে বেসরকারি ইস্পাত কারখানায় বিক্ষোভ

শুভেন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়, আসানসোল: লকডাউনের কারণে কাজ হারিয়েছেন স্থানীয়রা। অন্যদিকে বহিরাগত শ্রমিকদের নিয়ে এসে কাজ করাচ্ছেন কারখানার মালিক। এই অভিযোগে ও কাজের দাবিতে সোমবার বেসরকারি ইস্পাত কারখানার সদর দরজা বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখালেন আসানসোলের সালানপুরে দেন্দুয়া গ্রামের মানুষেরা।

বেসরকারি কারখানা গেটের সামনে কয়েকশো স্থানীয় যুবক বিক্ষোভ দেখায়। তারা কারখানার মূল গেট এমনভাবে বন্ধ করে দেয় যে, কারখানা কর্তৃপক্ষ থেকে শ্রমিক কেউই এদিন ঢুকতে পারেননি। এমনকি যারা কাজের জন্য আগে থেকে কারখানার ভেতরে ছিলেন তারাও বিক্ষোভের কারণে বাইরে বেরিয়ে আসতে পারেননি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় সালানপুর থানা ও কল্যাণেশ্বরী ফাঁড়ির পুলিশ।

স্থানীয় যুবকেরা অভিযোগ করে বলেন, এই কারখানায় শুধু বহিরাগত শ্রমিক এনে কাজ করানো নয়, বহিরাগত ঠিকা সংস্থাকেও কাজের বরাত দেওয়া হচ্ছে।

আন্দোলনকারীদের তরফে ভক্তি মণ্ডল, বৈদ্যনাথ চক্রবর্তীরা বলেন, এই কারখানায় লকডাউনের জন্য কিছু শ্রমিককে কাজ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিলে। তাদেরও এখন কাজে ফিরিয়ে আনতে হবে। স্থানীয়দের এদিনর আন্দোলনে সামিল হয়ে কারখানার শ্রমিকরা বলেন, এখানে শ্রমিকদের নায্য দাবি ও সুযোগ সুবিধা দেখা হয় না। শতাধিক মহিলা শ্রমিক এই কারখানায় কাজ করেন। কিন্তু তাদের জন্য কারখানায় নেই কোনও শৌচালয়ের ব্যবস্থাও।
স্থানীয়দের এই আন্দোলনের খবর জানানো হয় স্থানীয় বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়কে।

বিধায়কের নির্দেশে সালানপুর ব্লকের তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক ভোলা সিং এসে আন্দোলনরত যুবকদের সঙ্গে কথা বলে তাদের শান্ত করেন। তাদের দাবি শুনে তিনি কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দেখা করেন। তিনি আশ্বাস দেন, কারখানা কর্তৃপক্ষ সমস্যাগুলির দ্রুত সমাধান করবে।
এই প্রসঙ্গে কারখানা গ্রুপের এইচআর (হেড) মৃত্যুঞ্জয় চট্টোপাধ্যায় বলেন, স্থানীয় লকডাউনের কারণে কারখানার স্বাভাবিক কাজকর্ম হচ্ছে না। কিছু ত্রুটি বিচ্যুতি রয়েছে। এই বিষয়ে এলাকার বিধায়কের সঙ্গে কথা বলে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Related Articles

Back to top button
Close