fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সরকারি সাহায্যের দাবি, বারাবনিতে রাস্তায় দুধ ফেলে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: মার্চ মাস থেকে শুরু হওয়া লকডাউনের কারনে সমস্যায় পড়েছেন সমাজের সর্বস্তরের মানুষ। ঠিক মতো না আসায় জিনিসের দাম বেড়েছে। মিষ্টি বা চায়ের দোকান ঠিক মতো না খোলা , হোটেল বন্ধ থাকায় এই লক ডাউনে বেশী সমস্যায় পড়েছেন গোয়ালা বা দুধ ব্যবসায়ীরা। অবিলম্বে সরকারি সাহায্য দিতে হবে এই দাবিতে শনিবার আসানসোলের বারাবনি ব্লকের বারাবনি স্টেশন লাগোয়া রেলগেটের কাছে রাস্তায় প্রায় ১০০ লিটার দুধ ফেলে বিক্ষোভ দেখান বেশ কয়েকজন দুধ ব্যবসায়ী।

জানা এই বারাবনি এলাকায় ১০০ টিরও বেশি খাটাল আছে। তারমধ্যে বারাবনি রেলগেট সংলগ্ন এলাকায় আছে ২৬টি খাটাল। দুধ ব্যবসায়ীদের তরফে বিকাশ যাদব এদিন অভিযোগ করে বলেন, এই লক ডাউনে গরু ও মোষ পালন করতে গিয়ে নাজেহাল হতে হচ্ছে গোয়ালাদের । কারন দাম বেড়েছে খড় বা বিচালি থেকে গরু ও মোষের খাদ্য সামগ্রীর। তারপর লক ডাউনের ফলে সমস্ত হোটেল বন্ধ রয়েছে। মিষ্টির দোকান খুললেও তেমন দুধের চাহিদা নেই। ফলে গোয়ালাদের এখন দুধ বিক্রি প্রায় বন্ধের মুখে। ঘরে ঘরে কয়েকশো লিটার দুধ হচ্ছে। কিন্তু দুধ বিক্রির অভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে সেইসব দুধ।

আরও পড়ুন: আমফান পরবর্তী পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে বনগাঁয় স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়

তিনি বলেন, তাই এদিন সরকারী সাহায্য চেয়ে আসানসোলের বারাবনি রেল গেটের সামনে অভিনব বিক্ষোভ দেখায় দুধ ব্যবসায়ী বা গোয়ালারা রাস্তার উপরে লিটার লিটার দুধ ফেলে দিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছে । তাদের বক্তব্য, খড় সহ সব কিছুরই দাম বাড়ছে। উত্তরপ্রদেশ ও বিহারে প্রায়ই যাদবদের ওপর অত্যাচার চলেছে। আমরা এই অবস্থায় ছেলেমেয়েদের নিয়ে সংসার পালন করতে পারছি না। সংসারে অভাব দেখা দিয়েছে। অন্যদিকে, ব্লক প্রশাসনের তরফে এদিন বলা হয়, গোটা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close