fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

লেবাননে মার্কিন জেনারেলের সফরকে ঘিরে বিক্ষোভ, বাতিল স্মরণসভা

বেইরুট (সংবাদ সংস্থা): মার্কিন সেনাবাহিনীর পশ্চিম এশিয়া কমান্ডের প্রধান জেনারেল কেন্ট ম্যাকেনজির সফরকে ঘিরে বিক্ষোভ উত্তাল হয়ে ওঠে লেবানন। বিক্ষোভকারীরা জাতীয় পতাকা হিজবুল্লাহ প্রতি সমর্থন জানিয়ে বেইরুট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রবেশপথে বিক্ষোভ দেখান। বিক্ষোভকারীদের দাবি ছিল, দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মার্কিন হস্তক্ষেপ বন্ধ করতে হবে।
১৯৮৩ সালের ২৩ অক্টোবর লেবাননে মার্কিন বাহিনীর ওপর এক হামলায় ২২০ জন সেনা নিহত হন। সেই হামলায় নিহত সেনাদের স্মরণে বেইরুটে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আসেন মার্কিন জেনারেল ম্যাকেনজি।

আরও পড়ুন:ফের বলিউডে নক্ষত্রপতন, প্রয়াত অভিনেতা জগদীপ

তবে, বিক্ষোভের কারণে ওই অনুষ্ঠান বাতিল হয়েছে বলে খবর। উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরেই লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহ সম্পর্কে বেফাঁস মন্তব্য করে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডরোথি শেয়া। সম্প্রতি তিনি জানান, “দেশটির চলমান অর্থনৈতিক সংকট নিরসনের পথে বাধা হয়ে আছে হিজবুল্লাহ।” একইসঙ্গে তিনি হিজবুল্লাহকে সরকারের বাইরে রাখারও আহ্বান জানান। আর এই বিতর্কিত মন্তব্যের জেরেই আদালতের নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়েন ডোরোথি শেয়া। শুধু তাই নয়, লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াবকে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডরোথি শেয়া বার্তা পাঠিয়ে হুমকি দিয়ে লেখেন “আপনি হিজবুল্লাহ’র দিক নির্দেশনায় চলছেন”।

আরও পড়ুন:কোচবিহারের ৫ বিধানসভায় এগিয়ে বিজেপি, নাটাবাড়িতে পিছিয়ে মন্ত্রী রবীন্দ্র!

এর জেরে লেবাননের জনগণের মনে মার্কিন প্রশাসনের প্রতি ক্ষোভ জন্মেছে। কেননা, জাতীয় ও আন্তর্জতিক আইন অনুযায়ী ভিন্ন দেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতির বিষয়ে কোনও রাষ্ট্রদূত হস্তক্ষেপ করতে পারেন না।

একই সঙ্গে জানা যাচ্ছে, হিজবুল্লাহ হচ্ছে লেবাননের অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি সংগঠন। নির্বাচনে এই দলের প্রার্থীরা ব্যাপক ভোটে বিজয়ী হয়ে সংসদে এসেছেন। তাই, হিজবুল্লাহ সম্পর্কে বেফাঁস মন্তব্যের পর লেবাননের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দও মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডোরোথি শেয়ার হস্তক্ষেপমূলক বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button
Close