fbpx
কলকাতাহেডলাইন

মানুষের খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসায় অধিকার প্রতিষ্ঠা হোক মানবাধিকার দিবস অঙ্গীকারে জয়দীপ মুখোপাধ্যায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আজ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস। রাষ্ট্রসঙ্ঘের সনদ অনুযায়ী প্রত্যেক বৎসর ১০ ডিসেম্বর দিনটিকে মানবাধিকার দিবস হিসেবে পালিত হয় সারা পৃথিবীতে এবং ভারতবর্ষে। সে মানবাধিকার দিবসের প্রাক্কালে প্রত্যেক মানুষের খাদ্য বস্ত্র বাসস্থান শিক্ষা চিকিৎসা অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই লক্ষ্য বলে মন্তব্য করলেন অল ইন্ডিয়া লিগ্যাল এইড ফোরামের সাধারণ সম্পাদক তথা সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ও ভারতবর্ষের মানবাধিকার আন্দোলনের অন্যতম নেতা জয়দীপ মুখার্জি। তিনি বলেন পৃথিবীর তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে মানবাধিকার কথাটি “সোনার পাথরবাটির ন্যায়”। যদিও সরকার ও সংবিধান চেষ্টা করছে মানুষের মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করতে। কিন্তু এই মুহূর্তে সবথেকে বড় সমস্যা পৃথিবীর তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে যেগুলি সেটা হচ্ছে ক্ষুধা ও দারিদ্রতা। যতদিন না পর্যন্ত প্রত্যেকটি মানুষের খাদ্যের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা যাবে ততদিন পর্যন্ত মানুষের মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা হবে না। ভারতবর্ষের সংবিধান মানুষের মৌলিক অধিকার গুলি কি আইন স্বীকৃত করেছেন কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে সেটা সমাজের নিচু তলায় পৌঁছায় না। তাই এই ব্যাপারে সরকার ও প্রশাসন কে সাহায্য করতে এগিয়ে আসা দরকার। জন সংগঠন, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, এনজিও সহ সাধারণ মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। জয়দেব বাবু আরো বলেন, “মহিলা অধিকার, শিশু শ্রমিক, কন্যা ভ্রুণ হত্যা, কুসংস্কার, নারী নির্যাতন এই সমস্ত বিষয় গুলির উপর আমাদের সদা সচেষ্ট থাকতে হবে। তাই মানবাধিকার দিবসে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করতে মানুষের খাদ্য বস্ত্র বাসস্থান শিক্ষা ও চিকিৎসায় অধিকারের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন জয়দীপ মুখার্জি।

Related Articles

Back to top button
Close