fbpx
একনজরে আজকের যুগশঙ্খকলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পুজো আসছে, গ্রাম ও মফ:স্বলে টিকাকরণে জোর দিতে চাইছে রাজ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি: কঠোরভাবে করোনা বিধি মেনে রাজ্যবাসী দুর্গোৎসব পালন করুক, এই আবেদন বারবার করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  উল্লেখ্য বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো দরজায় কড়া নাড়ছে। পুজোর ঢাকে কাঠি পড়তে আর বেশিদিন নেই। ছয় অক্টোবর মহালয়া। এরপর এগারো অক্টোবর থেকে পুরোদমে পুজো শুরু হয়ে যাবে। তার আগে গ্রামীণ এলাকায় টিকাকরণে আরও বেশি করে জোর দিতে চাইছে নবান্ন। গ্রামীণ এলাকার প্রচুর মানুষ এই সময় শহরে পুজোর বাজার করতে আসেন। পুজো দেখতেও শহরমুখী হবেন অনেকেই। মূলত সেদিকে লক্ষ্য রেখেই এবার গ্রামীণ ও মফ:স্বল এলাকায় টিকাকরণে বেশি জোর দিতে চাইছে রাজ্য। এতদিন শহরাঞ্চলে অনেক বেশি টিকাকরণ হয়েছে গ্রামের তুলনায়। কিন্তু বর্তমানে গ্রামীণ এলাকায় টিকাকরণের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। বর্তমানে প্রায় ৬০-৭০ শতাংশ টিকা গ্রামীণ এলাকায় দেওয়া হচ্ছে। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক একথা জানিয়েছেন।

১ এপ্রিল থেকে ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পরিসংখ্যান অনুযায়ী  ১০.৮ মিলিয়ন ডোজ কেবলমাত্র গ্রামীণ এলাকায় দেওয়া হয়েছে। এদিকে শহরের প্রায় ৮৫ থেকে ৯০ শতাংশ মানুষ প্রথম ডোজ পেয়েছেন। অন্যদিকে শহরতলি থেকে প্রচুর মানুষ চিকিৎসার পাশাপাশি টিকার জন্য শহরের হাসপাতালে আসছেন। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত প্রায় ৫০.২ মিলিয়ন মানুষ টিকার অন্তত একটি ডোজ নিয়েছেন।  এক স্বাস্থ্য আধিকারিক জানিয়েছেন, গত ১৮ সেপ্টেম্বর বাংলায় ১৩০২৮৬৪ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছিল। যা দৈনিক টিকাকরণের ক্ষেত্রে এখনও সর্বোচ্চ সর্বোচ্চ।

Related Articles

Back to top button
Close