fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

‘উত্‍সব থেমে থাকে না’, বাড়ল পুজো বোনাস, সরকারি কর্মীদের খুশির খবর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোন পরিস্থিতির মধ্যেই বোনাস ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করেন, অনেক অসুবিধা সত্ত্বেও এবছর রাজ্য সরকার কর্মীদের উৎসব ভাতা দিচ্ছে। নবান্নে প্রেস কনফারেন্স করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা সংকটের মধ্যেও কেন্দ্রের বঞ্চনা অব্যাহত রয়েছে। তবে তা সত্ত্বেও রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বেতন দিতে দেরি হয়নি।’ এর পরই তিনি আর বলেন, ‘উৎসব থেমে থাকে না, বোনাস এবং অগ্রিম এবারও দেওয়া হবে’। সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী, এবার বোনাস বা উৎসবভাতা দেওয়া হচ্ছে ৪,২০০ টাকা। যা গতবার ছিল ৪ হাজার টাকা। একইসঙ্গে এই বোনাস পাওয়ার ক্ষেত্রে বেতনের সীমাও বাড়ানো হয়েছে।  এতদিন ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন হলে এই ভাতা পাওয়া যেত। এবার সেই সীমা বাড়িয়ে ৩৪,২৫০ টাকা পর্যন্ত করা হয়েছে।

গত বছরের তুলনায় বাড়ানো হয়েছে বোনাস। শুধু তাই নয়, বেতনের উর্দ্ধসীমাও বাড়ানো হয়েছে, যার ফলে সরকারি কর্মচারীরা উপকৃত হবেন। এর ফলে ১০ লক্ষ মানুষ উপকৃত হবেন বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে তিনি আরও জানান, বোনাস দেওয়ার জন্য সরকারের ৪০০ কোটি টাকা খরচ হবে। এর পাশাপাশি, যাঁদের বেতন বেশি, যাঁরা বোনাস পান না, তাঁদের জন্যও অগ্রিম ঘোষণা করেছেন মমতা।

আরও পড়ুন: বিশেষ‌ ট্রেন চালু করা নিয়ে ‌‌‌বাবুল-জীতেন্দ্র তরজা

একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, উৎসববাবদ অ্যাডাভান্সও ৮ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকা করা হয়েছে। এটা পরে বেতন থেকে কেটে নেওয়া হবে। এখন ইদের সময় মুসলিম কর্মীদের ও পরে দুর্গাপুজোর সময় হিন্দু কর্মীদের এই বোনাস ও অগ্রিম দেওয়া হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। এই ক্ষেত্রেও বেতনের সীমা বাড়িয়ে ৪১,১০০ টাকা করা হয়েছে।  শুধু বর্তমান কর্মচারীরাই নয়, রাজ্য সরকারের পেনশনভোগীরাও এই সুবিধা পাবেন। পেনশনভোগীদের জন্য এক্স-গ্রাশিয়া ২১০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২২০০ করা হয়েছে। এবং এক্ষেত্রে পেনশনের সিলিং ২৬,০০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ২৯,৭০০ টাকা। সরকার জানিয়েছে, পুরসভা, পঞ্চায়েত, স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীরাও বোনাস ও অগ্রিমের সুবিধা পাবেন।

Related Articles

Back to top button
Close