fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে নিউটাউন ক্লাবের পুজোর উদ্বোধন বালুরঘাটে, আবেগে ভাসছে শহর

পরীর দেশের থিম বানিয়ে দর্শকদের নজর কাড়তে চলেছে পুজো মণ্ডপ

পিন্টু কুন্ডু, বালুরঘাট: স্বাধীনতার ইতিহাসে এই প্রথম বালুরঘাটে ক্লাবের দুর্গাপূজোর উদ্বোধন করতে চলেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী। শুনতে অবাক লাগলেও বৃহস্পতিবার সকালে দিল্লি থেকে ভার্চুয়ালিভাবে নরেন্দ্র মোদির হাত দিয়ে উদ্বোধন হবে শহরের নিউটাউন ক্লাবের পুজো মন্ডপটি। বাংলাদেশ সীমান্ত ঘেঁষা দক্ষিণ দিনাজপুরের একটি পুজো উদ্বোধন করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী। যে খবর পেতেই শুধু বালুরঘাট নয় আবেগে ভাসছে গোটা দক্ষিণ দিনাজপুর। উচ্ছ্বাস উদ্দীপনায় রয়েছেন ক্লাব উদ্যোক্তারাও। কলকাতার নিউটাউনের একটি ক্লাবের পুজো উদ্বোধনের পাশাপাশি বালুরঘাটের এই পুজো মণ্ডপটির উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে পুজো উদ্বোধনের এমন স্মরণীয় মুহূর্ত ধরে রাখতে কোন খামতিই রাখছেন না পুজো উদ্যোক্তারা। কোভিড বিধি মেনে দর্শনার্থীদের এই পুজোর উদ্বোধন দেখার সুবিধা করে দিতে পর্যাপ্ত জায়েন্ট স্ক্রিনের ব্যবস্থা করেছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। ষষ্ঠীর দিন সকালের এই উদ্বোধনকে ঘিরে ক্লাব প্রাঙ্গণে চলছে এখন শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

করোনা আবহের মধ্যেও এবছর নিউটাউন ক্লাবের উদ্যোক্তাদের মধ্যে তাদের এই পুজো উদ্বোধনকে ঘিরে শুরু হয়েছে এক আলাদা উচ্ছ্বাস। ক্লাবের পূজোর ৬৭তম বছরকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর হাত দিয়ে এই উদ্বোধন একটা ইতিহাস সৃষ্টি করবে বলে মনে করছেন সকলেই। এবারে নিউটাউন ক্লাবে পূজোর বিশেষ আকর্ষণ পরীর দেশ। প্যান্ডেল জুড়ে থ্রিডি আলোর রোশনার মাধ্যমে দর্শনার্থীদের পরীর দেশে নিয়ে যাওয়া চেষ্টা করা হয়েছে।

মালদার মহাবীর ডেকরেটার্স দিনরাত এক করে প্যান্ডেল তৈরির কাজ করে চলেছেন। তবে স্থানীয় শিল্পীদের প্রাধান্য দিয়ে সাবেকি প্রতিমা গড়ার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সুবীর দাসকে।

আরও পড়ুন: ভার্চুয়ালি অঞ্জলি দেওয়ার ব্যবস্থা বাংলাদেশের দুর্গাপুজোয়

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় পুজোর ভার্চুয়ালি উদ্বোধন হবে। হাইকোর্টের নির্দেশকে মান্যতা দিয়েই ক্লাব উদ্যোক্তারা মন্ডপের সামনে পর্যাপ্ত স্যানিটাইজার, স্প্রে ইত্যাদির ব্যবস্থা করেছেন। উদ্বোধনের জন্য দুটি এলইডি স্ক্রিনের ব্যবস্থা ও করা হয়েছে ক্লাব কর্তৃপক্ষের তরফে। মণ্ডপের পাশে একটি মঞ্চ করে একজন শিল্পী নৃত্য প্রদর্শন করবেন। দর্শকরা যাতে স্মরণীয় উদ্বোধন দেখতে পান তার জন্য নির্দিষ্ট দূরত্বে জায়েন্ট স্ক্রিন থাকবে। ঢাক, ঢোল সহ শঙ্খ বাজিয়ে প্রধানমন্ত্রীর হাতে পুজোর উদ্বোধনকে আরও আকর্ষণীয় করে তোলা হবে ক্লাব প্রাঙ্গণ। দেশের প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে পুজোর এমন উদ্বোধন দেখতে এখন অধীর অপেক্ষায় রয়েছেন জেলার মানুষ।

Related Articles

Back to top button
Close