fbpx
কলকাতাদেশহেডলাইন

শিখের পাগড়ি খোলার ঘটনায় পুলিশ কর্মীরা কঠোর শাস্তির দাবি পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী, নিন্দা সুখবীর সিং বাদলের

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: নবান্ন অভিযানের আঁচ এবার ভিন্ন রাজ্যেও।  হাওড়া ময়দানে বিজেপি কর্মীর দেহরক্ষী বলবিন্দর সিংয়ের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। আর তা নিয়েই ঘোলা  জলে মাছ ধরতে নামে তৃণমূল। রাজ্য বিজেপিও পাল্টা জবাব দেয়।তবে এবার প্রতিক্রিয়া এসেছে খোদ পঞ্জাব থেকে। পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং সেই পুলিশ কর্মীরা কঠোর শাস্তির দাবি করেছেন যিনি বলবিন্দর সিংয়ের পাগড়ি খুলে দিয়েছিলেন। ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন শিরোমণি অকালি দলের সভাপতি সুখবীর সিং বাদলও।

পুলিশের অভিযোগ, আগ্নেয়াস্ত্রটির লাইসেন্স থাকলেও তা ছিল জম্মু কাশ্মীরের। অন্যরাজ্যে সেই আগ্নেয়াস্ত্র বহন করা বেআইনি। কিন্ত বলবিন্দর সিংকে গ্রেফতার করার সময় পুলিশ তাঁর পাগড়ি খুলে দেয়, এমনটাই অভিযোগ বিজেপির। আর এই ঘটনায় শিখদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে বলে বিভিন্ন মহলে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং টুইটে লিখেছেন, শিখ যুবককে গ্রেফতার করার সময় পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ যে অমানবিক ব্যবহার করেছে, পাগড়ি খুলে নেওয়া হয়েছে তাতে আঘাত পেয়েছি। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে অনুরোধ যে পুলিশ কর্মী একাজ করেছেন তাঁকে যেন কঠোর শাস্তি দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: Republic TV: বেকায়দায় অর্ণব! TRP কাণ্ডে চিফ ফিনান্স অফিসারকে তলব মুম্বাই পুলিশের

এই ঘটনার নিন্দা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে  দোষী পুলিশ কর্মীকে দৃষ্টান্ত মূলক শান্তি দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন শিরোমণি অকালি দলের সভাপতি সুখবীর সিং বাদল। তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘ শিখ নিরাপত্তা রক্ষী বলবিন্দার সিংয়ের উপর আক্রমণ ও তাঁর পাগড়ি খুলে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ যে অসম্মান করেছে তার তীব্র নিন্দা করছি। এই অসম্মান বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা শিখদের ক্ষুব্ধ করেছে। আমি এই ঘটনার জন্য দায়ী পুলিশ কর্মীকে দৃষ্টান্ত মূলক শান্তি দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে আর্জি জানাচ্ছি।’

 

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close