fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনার থাবা পূর্বস্থলীতে,সতর্ক প্রশাসন

নিজস্ব সংবাদদাতা,কালনা: পূর্ব বর্ধমানে ফের করোনার থাবা। এইবারের ঘটনাস্থল কালনা মহকুমার পূর্বস্থলীর হামিদপুর। ছত্রিশ বছর বয়সী করোনা আক্রান্ত রোগীর বাড়ি ওই এলাকাতেই। তিনি কয়েকদিন আগেই মুম্বই থেকে বাড়ি ফেরেন। এরপরেই রবিবার তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। আর তারপরেই সংক্রমন রুখতে ওই এলাকা ঘিরে ফেলে পুলিশ।

স্থানীয় ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে যে,পূর্বস্থলীর হামিদপুর এলাকার ওই যুবক মুম্বইয়ে রাজমিস্ত্রীর জোগাড়ের কাজ করতেন। ওইখানেই থাকা আরও ছয়জনকে সঙ্গে নিয়ে সে গাড়ি ভাড়া করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় গত ১৪ ই মে।বাড়িতে ঢোকার আগেই দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে তাদের পরীক্ষা করা হয় ও লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয় বলে জানা যায়। এরপরেই তারা পূর্বস্থলীর ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসে ওইদিন সন্ধ্যা নাগাদ।

তাদেরকে নিজেদের বাড়িতেই হোম কোয়ারান্টাইনে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়। রবিবার ওই যুবকের রিপোর্ট আসে পজিটিভ। এরপরেই নড়েচড়ে বসেন পুলিশ প্রশাসন। ওই এলাকায় যাতে কোনোভাবেই সংক্রমণ না ছড়ায় সেইকারণে এলাকা ঘিরে ফেলে পুলিশ। এই বিষয়ে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রশান্ত সরকার বলেন,‘মুম্বই থেকে ওই যুবক কয়েকদিন আগে বাড়িতে আসেন।ওনার সঙ্গে আর ছয়জন ছিলেন।

বাড়িতে আসার আগেই লালারসের নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা করা হয় দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে। রবিবার পজিটিভ রিপোর্ট আসতেই করোনায় আক্রান্ত যুবককে দুর্গাপুরের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ফের পাঠানো হয়।এছাড়াও তার সঙ্গে আসা ও পরিবারের লোকজন মিলিয়ে মোট ১১ জনকে বর্ধমানের কেমরি হাসপাতালে পাঠানো হয়।’

Related Articles

Back to top button
Close