fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

জো বাইডেনকে এখনও প্রেসিডেন্ট মানতে নারাজ রাশিয়া, সংঘাতের ইঙ্গিত

মস্কো: এখনই জো বাইডেনকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের   নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হিসেবে মানতে নারাজ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। রবিবার, রাশিয়ার এক সংবাদমাধ্যমে তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ত্রুটির কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ যাঁর ওপরে ভরসা করেন তাঁর সঙ্গেই কাজ করতে চাই। তবে প্রতিপক্ষ যখন অন্যের জিত মেনে নেন তখনই তাকে জয় বলি। তা নাহলে আইনের রাস্তায় জয়কে মান্যতা পেতে হবে।’

একইসঙ্গে পুতিন বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনি ব্যবস্থায় ত্রুটি থাকার কারণে দেশটিতে চলমান সংকট সৃষ্টি হয়েছে। আমেরিকার নির্বাচনি ব্যবস্থায় যে সমস্যা রয়েছে তা এখন মার্কিন কর্মকর্তাদের কাছে স্পষ্ট। তবে, এবারের নির্বাচনের বৈধতা নিয়ে যে প্রশ্ন উত্থাপিত হয়েছে তার সমাধান করার দায়িত্ব মার্কিন জনগণের।’

পুতিন এমন সময় এই বক্তব্য দিলেন, যখন গত ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন বিজয়ী হলেও রিপাবলিকান প্রার্থী ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনের ফলাফল মেনে নিতে নেননি। নির্বাচনে ব্যাপকভাবে কারচুপির অভিযোগ করে যাচ্ছেন। যেখানে ৩০৬ টি ইলেকটোরাল ভোট পেয়ে ট্রাম্পের থেকে অনেক এগিয়ে আছেন জো বাইডেন।

সূত্রের খবর, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে রাশিয়ার ‘বিতর্কিত’ মন্তব্য নতুন নয়, এর আগেও ২০১৬ সালের মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ট্রাম্পের জয় নিয়ে রাশিয়ার দিতে আঙুল তুলেছিল মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলি। দাবি ছিল, ডোনাল্ড ট্রাম্পের জয়ের পেছনে রাশিয়ার হাত রয়েছে। ফলে সেই রাশিয়া এখন বাইডেনের জয় নিয়ে চিন্তিত। রাশিয়া মনে করছে, জো বাইডেনের নির্বাচনের ফলে রাশিয়ার ওপরে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বহর আরও বাড়বে। তাই মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে কূটনৈতিক চাল দিয়েছেন পুতিন। তিনি জো বাইডেনের নির্বাচনকে মান্যতা না দিলেও রাশিয়া অবশ্য জানিয়ে দিয়েছে, এর পেছনে সবটাই হল আনুষ্ঠানিকতা। কারণ জয় পেতে গেলে তা সবপক্ষ (ট্রাম্প ও বাইডেন)-কে মেনে নিতে হবে। এরপরেই পুতিনকে প্রশ্ন করা হয়, তাঁর ওই মন্তব্যের ফলে রুশ-মার্কিন সম্পর্কের ক্ষতি হবে কিনা! পুতিন বলেন, ক্ষতি হওয়ার কিছু নেই। আগে থেকেই দু’দেশের সম্পর্ক নষ্ট হয়ে রয়েছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close