fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কোয়ারেন্টাইন সেন্টার খুলতে গিয়ে বাগান শ্রমিকদের বিক্ষোভের মুখে বিডিও

সঞ্জিত সেনগুপ্ত, শিলিগুড়ি: কোয়ারেন্টাইন সেন্টার খুলতে গিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের বিক্ষোভে পিছিয়ে আসতে হল প্রশাসনকে। শিলিগুড়ি শহরের কাছে সুকনার ইলা পালচৌধুরি মেমেরিয়াল স্কুলে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার খোলার খবর পেয়ে শুক্রবার স্কুলের গেটের সামনে অবস্থানে বসেন স্কুল লাগোয়া মোহরগাও গুলমা চা বাগানের শ্রমিকরা। করোনা সংক্রমণের আতঙ্কে তাঁরা এখনে কোয়ারান্টাইন সেন্টার খুলতে দেবেন না বলে জানিয়ে দেন।

এদিকে শিলিগুড়িতে ১১ টি হোটেলকে জেলা প্রশাসন পেইড কোয়ারেন্টাইন সেন্টার হিসেবে ঘোষণা করেছে। সুকনায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টার খুলতে না দেওয়ার দাবিতে দীর্ঘক্ষন বিক্ষোভ চলার পর মাটিগাড়ার বিডিও রুনু রায় সেখানে যান এলাকাবাসীকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার খোলার বিষয় রাজি করানো হয়। কিন্তু সেখানে গিয়ে তিনি বিক্ষোভের মুখে পড়েন৷ তাকে দেখতে পেয়ে এই চা বাগানের শ্রমিকরা লকডাউনের সময় তাদের প্রতি প্রশাসনের উদাসীনতা নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন।

বিডিও বলেন, ‘উভয় পক্ষের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। এলাকার বাসিন্দারা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে তাদের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবেন। তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রশাসন প্রয়োজন মতো পদক্ষেপ নেবে। বিষয়টি আমি উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।’

চা বাগান শ্রমিকদের বক্তব্য, বাইরের শ্রমিকদের এখানে এনে রাখা হলে তাঁরা ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যাবেন। এখানে যেসব শ্রমিক বাইরে ছিলেন তারা আসার পর চা বাগান শ্রমিকরা প্রশাসনের সহযোগিতায় নিজেরাই কোয়ারেন্টাইন সেন্টার বানিয়ে তাদের রেখেছেন।

শ্রমিকদের বক্তব্য, বাগানের মধ্যে কেউ সংক্রমিত হলে ১০ হাজার গরীব মানুষ বিপর্যয়ে পড়বে। তাঁদের অভিযোগ, লকডাউনে চা বাগান বন্ধ থাকার সময় প্রশাসনের তরফে তাদের পাশে এসে কেউ দাঁড়ায়নি। তাই এখন প্রশাসনের জোর করে বিপদ চাপিয়ে দেওয়া পদক্ষেপও তাঁরা মেনে নেবেননা।

Related Articles

Back to top button
Close