fbpx
দেশহেডলাইন

করোনার সুযোগে ফয়দা তুলছে সরকার, কটাক্ষ রাহুলের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার সুযোগে ফয়দা তুলছে সরকার, কটাক্ষ রাহুলের। শনিবার তিনি টুইট করে বলেন, দেশের উপর সংকটের কালো মেঘ। মানুষ সমস্যায় পড়েছেন। আর গরিব বিরোধী সরকার এই বিপদের সময়েও মুনাফা লুটছে।”কিছুদিন আগে রেলমন্ত্রী জানান, শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনের ভাড়া বাবদ সরকার পেয়েছে ৪২৯ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা। ৯ জুলাই অবধি ওই ট্রেন চালানো হয়েছে। রাহুল লিখেছেন, দেশ অতিমহামারী হয়েছে, মানুষ বিপদে পড়েছেন, এই অবস্থায় সরকার লাভ করছে। তারা বিপর্যয় থেকে ফয়দা তোলার রাস্তা খুঁজে পেয়েছে। রেল সূত্রের খবর, পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে যে ট্রেন চালানো হয়েছিল, তাতে খরচ হয়েছে প্রায় ২ হাজার ১৪২ কোটি টাকা। অর্থাৎ ব্যয়ের তুলনায় রোজগার অনেকটাই কম। কিন্তু তাতেও কটাক্ষ করতে ছাড়ছেন না বিরোধীরা। প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর  দাবি, মানুষের বিপদের সময় এই সরকার মুনাফা লুটছে।

ভারতে দু’মাসের বেশি লকডাউনের পরেও করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি বলে কেন্দ্রে মোদী সরকারের সমালোচনা করেছিলেন রাহুল গান্ধী। সেই সমালোচনার জবাব দেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। মহারাষ্ট্রের উদাহরণ টেনে এনে তিনি বলেন, রাহুল গান্ধী ভুল তথ্য দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন। এই পরিস্থিতিতে তিনি রাজনৈতিক ফায়দা তোলার চেষ্টা করছেন বলেই অভিযোগ করেছেন রবিশঙ্কর প্রসাদ। কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যখন সবাইকে হাততালি দিতে বলেছিলেন, কিংবা মোমবাতি ও প্রদীপ জ্বালানোর কথা বলেছিলেন, তখনও তাঁর সমালোচনা করেছিলেন রাহুল গান্ধী। এই সব কথা বলে রাহুল গান্ধী তাদেরই মনোবল বাড়াচ্ছেন, যারা এই দেশটাকে ভাগ করতে চায়।’

রাহুল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চেরও সমালোচনা করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন রবিশঙ্কর। কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রীর বক্তব্য, আইসিএমআর বলছে, ভারতে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। কেন্দ্রের লকডাউন ও অন্যান্য নির্দেশের প্রশংসা করেছে তারা। তখন রাহুল গান্ধীর বিরোধিতা করার মানে তিনি আইসিএমআর-এর চিকিত্‍সক ও বিজ্ঞানীদেরও সমালোচনা ও অপমান করছেন। এমনকি করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করা ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী ও পুলিশের সমালোচনা করতে রাহুল পিছপা হননি বলেই অভিযোগ রবিশঙ্কর প্রসাদের।

Related Articles

Back to top button
Close