fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আমফান মোকাবিলায় সেনাকে ডাকা সহ চারদফা দাবি রাহুল সিনহার

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: আম্বানি মোকাবিলায় রাজ্য সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ। শনিবার বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা বিজেপি সদর দফতরে তোপ লাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। এদিন তিনি বলেন, ‘আমফান পরবর্তী পরিস্থিতি সামলাতে পারছে না রাজ্য সরকার। আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে চারটি দাবি জানাচ্ছি। প্রথমত অবিলম্বে সেনা ডাকুন, দ্বিতীয়ত সব রাজনৈতিক দলকে ত্রাণের কাজ করতে দিন, তৃতীয়ত বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকে ত্রাণের কাজ করার জন্য ডাকুন, চতুর্থত বিভিন্ন মেডিক্যাল টিমকে ডাকুন।’

রাহুল সিনহা বলেন, ‘চারদিন হয়ে গেল শহরে জল নেই, বিদ্যুৎ নেই, দুর্বিষহ অবস্থা। কোন রাজনৈতিক দল নয়, মানুষ শহরের নানা প্রান্তে বিক্ষোভ করছেন। আর মেয়র বলছেন, ওঁর হাতে জাদুদণ্ড নেই। চমৎকার কথাবার্তা। শহরে কিছু কাঁচা বাড়ি সেদিনের দুর্যোগে ভেঙে পড়েছে। এর জন্য তৃণমূলের চোর নেতারা দায়ী, রাজ্য সরকার দায়ী। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার টাকা নিয়ে নয়ছয় না হলে ওই কাঁচা বাড়িগুলো পাকা হত।’

তিনি অভিযোগ করেন, ‘ঘূর্ণিঝড়ের ১৫ দিন আগে সরকারকে সতর্ক করা হয়েছে। অথচ সরকার বিষয়টা সিরিয়াসলি নেয়নি। তাই এত ক্ষয়ক্ষতি। প্রধানমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রীর আমন্ত্রণের সঙ্গেই রাজ্যে এসেছেন। রাজ্যের জন্য ১০০০ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন। অথচ তাতেও মুখ্যমন্ত্রী খুশি নন। অদ্ভুত ব্যাপার!

এদিন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের গাড়ি আটকানো নিয়েও সরব হন তিনি।
রাহুল সিনহা বলেন, ‘অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। নিজেরা কিছু করবে না। অন্য কাউকে করতে দেব না। অত্যন্ত নিম্নমানের রাজনীতি।

Related Articles

Back to top button
Close