fbpx
দেশহেডলাইন

রাম জন্মভূমি আন্দোলন: কেউ পারেনি, সমস্তিপুরের কাছে আডবানীর রথযাত্রায় জল ঢেলে দেন একমাত্র লালু

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:   ৫ আগস্ট, হিন্দু ধর্মের জন্য এক ঐতিহাসিক দিন হিসাবে ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে। এই ঐতিহাসিক মুহূর্তের সাক্ষী থাকতে পেরে তিনি নিজেকে ভাগ্যবান বলে মনে করছেন বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, ” রাম জন্মভূমি আজ মুক্ত। সরযূ নদীর তীরে সূচনা হল স্বর্ণযুগের। আজকের এই দিন্টা এক দিনে আসেনি, এর পিছনে রয়েছে, অয়ান্দলন, আত্মবলিদান। সুদীর্ঘ ইতিহাসের পথ পেরিয়ে আজকের এইদিন। দীর্ঘ ২৯ বছরের প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে আজ গৌরবের সূর্যদয় দেখল দেশবাসী।

অযোধ্যা ভূমিপুজোর মধ্যে দিয়ে বহু প্রতীক্ষিত রাম মন্দির নির্মাণের সূচনাপর্ব হল বুধবার। তবে এই রাম মন্দির আন্দোলনের সুদীর্ঘ ইতিহাসে দুজন অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবেন। একজন অবশ্যই বিজেপির ‘লৌহপুরুষ’লালকৃষ্ণ আডবানী এবং আরেকজন রাষ্ট্রীয় জনতা দলের সুপ্রিমো লালুপ্রসাদ যাদব। রাম জন্মভূমি আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃত আডবানীকে আটকানোর সাহস দেখিয়েছিলেন একমাত্র লালুই।

১৯৯০ সালে গুজরাটের সোমনাথ থেকে অযোধ্যা পর্যন্ত ১৮০০ কিমি যাত্রাপথে কোনও রাজ্য আটকায়নি। কিন্তু আডবানীর রথযাত্রাকে আটকে দিয়েছিলেন লালুপ্রসাদ যাদব। ২৩ অক্টোবর বিহারের সমস্তিপুরে শুধু রথই আটকাননি, গ্রেপ্তারও করেছিলেন আডবানীকে। তখন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন লালুপ্রসাদ যাদব। আটের দশকের শেষদিকে রাম জন্মভূমি আন্দোলন দেশে তুঙ্গে। আর সেই আন্দোলনের একেবারে সামনের সারিতে ছিলেন বিজেপির লৌহপুরুষ। আডবানী, মুরলী মনোহর জোশী, উমা ভারতীরা তখন দেশের হিন্দুত্ববাদীদের প্রতীক।

আরও পড়ুন: মন্দির নির্মাণের সঙ্গে এবার রাম রাজ্যও স্থাপিত হবে: রামদেব

অযোধ্যার বিতর্কিত ভূখণ্ডে বাবরি মসজিদ ভেঙে রাম মন্দির তৈরির দাবিতে ১৯৯০ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর গুজরাটের সোমনাথ থেকে রথযাত্রা শুরু করেন আডবানী। যাত্রাপথে একাধিক রাজ্যে অশান্তি হলেও যাত্রা কোনও প্রশাসন আটকায়নি। কিন্তু সমস্তিপুরের কাছে আডবানীর রথযাত্রায় জল ঢেলে দেন লালু। পরে অবশ্য এই প্রসঙ্গে লালু বলেছিলেন, “শুধু দেশকে বাঁচাতে ওনাকে গ্রেফতার করেছিলাম। দেশকে সুরক্ষিত রাখতে এবং ভারতের সংবিধানকে রক্ষা করতে। সংরক্ষণ নিয়ে মণ্ডল কমিশনের সুপারিশের জেরে সমস্তিপুরে বিজেপির রথযাত্রা আটকাতে হয়েছিল। কিন্তু আমি ঠিক করেই নিয়েছিলাম যে লালকৃষ্ণ আডবানীকে অযোধ্যার দিকে যেতে দেব না।”

Related Articles

Back to top button
Close