fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কয়লায়ও করোনার কামড়! লকডাউনের পথে রানীগঞ্জ

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়,আসানসোল:  পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল পুরনিগমের রানিগঞ্জ পুর এলাকায় করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে। এই পরিপ্রেক্ষিতে সেই সংক্রমণ আটকাতে এবার কঠোর পদক্ষেপ নিলো জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও পুর কতৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার বিকালে আসানসোল পুরভবনের চেম্বারে এক জরুরী বৈঠকের পরে মেয়র জানান, রানিগঞ্জের দুটি ওয়ার্ডে (৮৮ ও ৮৯) গত কয়েকদিনে করোনা সংক্রমণ সবচেয়ে হয়েছে। তাই পুলিশ, স্বাস্থ্য দপ্তর ও জেলা প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করার পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, রানিগঞ্জের দুটি ওয়ার্ডে পুরো লক ডাউন করা হবে। আগামী শনিবার সকাল থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে।

এদিনের বৈঠকে অন্যদের মধ্যে ছিলেন পুর কমিশনার খুরশিদ আলি কাদরি, দুই মেয়র পারিষদ পূর্ণশশী রায় ও দিব্যেন্দু ভগৎ, রানিগঞ্জ থানার ওসি সঞ্জয় চক্রবর্তী, রানিগঞ্জ ব্লকের বিডিও ও রানিগঞ্জ এলাকার পুর কাউন্সিলাররা।
পুরনিগমের স্বাস্থ্য দপ্তরের মেয়র পারিষদ দিব্যেন্দু ভগৎ বলেন, রানিগঞ্জের ১০টি ওয়ার্ডে গত কয়েকদিনে মোট ৪০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তারমধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় ১৩ জন আক্রান্তর হদিশ পাওয়া গেছে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৮৮ ও ৮৯ নং ওয়ার্ডে ১১ ও ৮ জন আক্রান্তর খোঁজ মিলেছে। এছাড়াও ৩৩ নংয়ে ২ , ৩৪ নংয়ে ৪, ৩৫ নংয়ে ১, ৩৭ নং ১, ৯০ নংয়ে ১, ৯১ নংয়ে ৩, ৯২ নংয়ে ৪ ও ৯৩ নংয়ে ৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন৷ তিনি আরো বলেন, দুটি এলাকাকে কন্টাইনমেন্ট জোন করা আছে৷ জরুরি প্রয়োজনীয় জিনিসের দোকান ছাড়া সব দোকান দুপুর দুটো পর্যন্ত খোলা থাকছে। বাজার একদিন খোলা ও একদিন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
এদিনের বৈঠকের পরে মেয়র  বলেন, সাধারণ মানুষের অসুবিধার কথা ভেবে শনিবার সকাল থেকে লক ডাউন করা হবে। জেলাশাসক পূর্ণেন্দু কুমার মাজি ও পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই পুলিশ মানুষকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা ও সচেতন করতে এলাকায় এলাকায় প্রচার চালাচ্ছে। পুরনিগমের পক্ষ থেকে একটা কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে। পুরনিগমও প্রচার চালাবে। মেয়র আরো বলেন, সবাই মাস্ক পড়ুন। সরকারের নির্দেশ মেনে চলুন।

Related Articles

Back to top button
Close