fbpx
দেশহেডলাইন

সর্বকালের রেকর্ড বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয় ভারতের, দাবি আরবিআইয়ের

নিজস্ব প্রতিনিধি, মুম্বই : সর্বকালের রেকর্ড বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয় ভারতের। তথ্য প্রকাশ করে দাবি করলো রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া (আরবিআই)।
করোনা আর লকডাউনের জেরে বিশ্বজুড়ে অর্থনৈতিক মন্দা দেখা দিয়েছে। প্রভাব পড়েছে ভারতের অর্থনৈতিক কাঠামোতেও। তার মধ্যেই ভারতীয়দের জন্য সুখবর দিয়েছে আরবিআই। নিজেদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয় এখন ভারতে।
সব থেকে মজার বিষয় হল এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়েও প্রতি সপ্তাহে বেড়েছে বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয়। বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয়ে মার্কিন ডলার, ইউরো, পাউন্ড সহ অন্যান্য মুদ্রা থাকলেও গচ্ছিত অর্থের মূল্য ডলারেই প্রকাশ করা হয়। সেই হিসাবে গত ২২ মে শেষ হওয়া সপ্তাহে বিদেশি মুদ্রার পরিমাণ বেড়েছিল ৩০০ কোটি ডলার। তখন বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয় ছিল মোট ৪৯ হাজার ৪৪ কোটি ডলার। এরপর গত ২৯ মে শেষ হওয়া সপ্তাহের তথ্য ৫ জুন প্রকাশ হলে দেখা যায়, এই সপ্তাহে ভারতে বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয় বেড়েছে ৩৪৩ কোটি ডলার। অর্থাৎ বৃদ্ধির পরিমাণ প্রায় ২৬ হাজার কোটি টাকা।আর তার ফলে বর্তমানে ভারতের মোট বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৯ হাজার ৩৪৮ কোটি ডলার, অর্থাৎ চার লাখ কোটি টাকারও বেশি।
এর আগে পরপর দু’বছরেও রেকর্ড বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয় হয়েছিল ভারতের। তথ্য অনুযায়ী ২০১৮ সালের এপ্রিলে ভারতের ফরেন্স রিজার্ভ সর্বোচ্চ ৪২ হাজার ২৬০ কোটি ডলারের রেকর্ড অর্জন করে। এরপর ২০১৯ এর জুন মাসে ৪২ হাজার ৬০০কোটি ডলারের রেকর্ড ভাঙ্গে। আর এখন এই সংকটের পরিস্থিতিতেও সেই সব রেকর্ড ভেঙে সঞ্চয় ৪৯ হাজার ৩৪৮ কোটি ডলার।
অর্থনীতিবিদদের দাবি, করোনা ও লকডাউনের ফলে অর্থনীতিতে যে ধাক্কা এসেছে বা আসছে, তা সামলাতে এই বৈদেশিক মুদ্রার ভাণ্ডার অনেকটা সাহায্য করবে।
তবে বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয় বাড়লেও কমেছে মোট গচ্ছিত সোনার পরিমাণ। ২২ মে শেষ হওয়া সপ্তাহের থেকে প্রায় ১০ লাখ ডলার মূল্যের পতন হয়ে ২৯ মে শেষ হওয়া সপ্তাহে গচ্ছিত সোনার মোট মূল্য দাড়়িয়েছে ৩ হাজার ২৬৮ কোটি ডলার, অর্থাৎ প্রায় আড়াই লাখ কোটি টাকা।
বৈদিশিক মুদ্রা সঞ্চয়ের রেকর্ড 
২০১৮ — এপ্রিল– ৪২ হাজার ২৬০ কোটি ডলার
২০১৯– জুন —   ৪২ হাজার ৬০০ কোটি ডলার
২০২০– ২২ জুন– ৪৯ হাজার ৪৪ কোটি ডলার
২০২০- ২৯ জুন– ৪৯ হাজার ৩৪৮ কোটি ডলার

Related Articles

Back to top button
Close