fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পুলিশ দিবসকে সামনে রেখে কালনায় করোনা যোদ্ধা পুলিশ কর্মীদের সম্বর্ধনা

অভিষেক চৌধুরী, কালনা: মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে রাজ্য জুড়ে পুলিশ দিবস পালিত হল। সেই পুলিশ দিবসকে সামনে রেখেই বুধবার পূর্ব বর্ধমানের কালনায় পুলিশকর্মীদের সম্বর্ধনা দিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবী সুব্রত পাল, গবেষক রেজাউল ইসলাম মোল্লা(রানা) সহ বিশিষ্টজনেরা। সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সার্কেল ইন্সপেক্টর তুহিন বিশ্বাস, ওসি রাকেশ সিং সহ অন্যান্য পুলিশ কর্মীরা।

শুধু আইনশৃঙ্খলা রক্ষাই নয়, করোনা পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষকে রক্ষা করতে, তাদের সচেতনতার পাঠ দিতে এমনকি ত্রাণ কার্যেও রাজ্যজুড়ে পুলিশকে ঝাঁপিয়ে পড়তে দেখা গেছে। পূর্ব বর্ধমানের কালনা থানায় এইদিন প্রায় একশো পুলিশকর্মীকে সম্বর্ধনা দেওয়া হয়। উত্তরীয় পরিয়ে, হাতে পুষ্পস্তবক সহ পেন, মাস্ক, স্যানিটাইজার দিয়ে মিষ্টিমুখও করানো হয় তাদের। স্বাভাবিক কারণেই এইরকম সম্বর্ধনা পেয়ে খুশি পুলিশকর্মীরাও।

এই বিষয়ে কালনার বিশিষ্ট সমাজসেবী সুব্রত পাল বলেন, ‘করোনা মহামারীর মতো কঠিণ পরিস্থিতিতে সকলকে বাঁচাতে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে চিকিৎসকদের পাশাপাশি সমানতালে মানুষের পাশে থেকেছেন পুলিশকর্মীরা।নির্ভীকভাবে কঠোর পরিশ্রমও করছেন তারা।পুলিশের এইরকম মহান কাজ সারা রাজ্যের মানুষ এই কয়েকটা মাসে ভীষণ ভালোভাবে দেখেছেন। তাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে এই প্রথমবার পুলিশ দিবসও পালিত হল।এইদিকে মন্ত্রী স্বপন দেবনাথও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি সুস্থও হয়ে উঠেছেন। তিনি কালনায় আসতে না পারার কারণেই তার নির্দেশে আমরাও ওনাদের সম্বর্ধনা দিলাম।’

এই বিষয়ে গবেষক রেজাউল ইসলাম মোল্লা(রানা) বলেন, ‘চিকিৎসকদের মতোই পুলিশ কর্মীরাও যেভাবে সামনের সারিতে থেকে মানুষকে বাঁচাতে নিরন্তর কাজ করে চলেছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়। তাই ওনাদের মতো করোনা যোদ্ধাদের সম্মান জানাতেই আমাদের এই সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান।’

Related Articles

Back to top button
Close