fbpx
কলকাতাহেডলাইন

‘আড়ম্বরহীন’ স্বাধীনতা দিবস পালন রেড রোডে, সংক্ষিপ্ত সময়ে শেষ হল গোটা অনুষ্ঠান

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  বর্তমানে দেশ সহ গোটা বিশ্বে চলছে করোনা আবহ। তবে এই মহামারী আবহে এবারে ব্যতিক্রমী স্বাধীনতা দিবস । দেশের ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে দেশের সর্বত্র অনাড়ম্বরেই উদযাপিত হবে দেশের সবচেয়ে গর্বের দিনটি। লালকেল্লায় প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান থেকে কলকাতার রেড রোডে মুখ্যমন্ত্রীর পতাকা উত্তোলন কর্মসূচি – এ বছর মূলত সবটাই দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর মতো। রেড রোডে ঘণ্টাখানেকের বড়সড় অনুষ্ঠান এবার আর নয়। মাত্র ২০-২৫ মিনিটের অনুষ্ঠান হল। কলকাতা পুলিশের কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে রাখা হয়েছে রেড রোড। উল্লেখ্য, এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সকলকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানান।

এদিন অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের মাধ্যমেই এই সম্মান জ্ঞাপন সারা হয়। করোনাকালে সবরকম সুরক্ষাবিধি এবং সামাজিক দুরত্ব মেনেই এদিনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করে রাজ্য সরকার। শনিবার সকালে প্রথমে নেতাজির মূর্তি ও পুলিশ মেমোরিয়ালে পুষ্পার্ঘ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপর পতাকা উত্তোলন করে ২৫ জন করোনা যোদ্ধাকে সম্মান জ্ঞাপন করেন তিনি।

এর মধ্যে যেমন রয়েছেন চিকিৎসক, পুলিশ, নার্স, সাফাইকর্মী। তেমনই রযেছেন করোনাজয়ী একাধিক ব্যক্তি। স্বাস্থ্যকর্মী থেকে সাফাইকর্মী, লড়াইয়ের একেবারে প্রথম সারিতে থাকা ২৫ জন কোভিড যোদ্ধাকে এদিন নিজের হাতে সংবর্ধনা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁদের হাতে তুলে দেওয়া হয় সরকারি সম্মাননা। সেই সঙ্গে শান্তি ও সম্প্রীতির বার্তা দিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পাশাপাশি ওড়ানো হয় সাদা পায়রাও। এদিন স্বাধীনতা দিবসের কুচকাওয়াজে সর্বমোট চারটি ট্যাবলো ছিল। রেড রোডের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য সকলকে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানা হয়েছিল। মুখে মাস্ক, সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে হয় অনুষ্ঠান।

আরও পড়ুন: বিজ্ঞানীদের সবুজ সংকেত পেলেই করোনার ভ্যাকসিন পাবেন ভারতীয়, লালকেল্লা থেকে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

এ বছর রেড রোডের অনুষ্ঠানের সবচেয়ে বড় উদযাপন কোভিড যোদ্ধাদের সংবর্ধনা। ২৫ জন করোনা যোদ্ধাকে নিজের হাতে সংবর্ধনা দেন মুখ্যমন্ত্রী। যার মধ্যে রয়েছেন ডাক্তার, নার্স, আশা কর্মী ও সাফাই কর্মীরা। মহামারী আবহে সমাজের একেবারে সামনের সারিতে থেকে এঁরাই করোনা যুদ্ধে শামিল হয়েছেন।

Related Articles

Back to top button
Close