fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মধ্যরাতে গৃহস্থের বাড়িতে আগুন দুষ্কৃতীদের, গোটা পরিবারকে পুড়িয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগ, তদন্তে পুলিশ

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর: একেবারে ফিল্মী কায়দায় বাইরে থেকে ঘরের সমস্ত দরজা আটকে একই পরিবারের ৭ জন সদস্যকে টিনের ঘরে কেরোসিন তেল ঢেলে জীবিত পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করল দুষ্কৃতীরা । চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার টিটাগড় থানার অন্তর্গত বড় কাঠালিয়া মাঝের পাড়া এলাকায় ।

অভিযোগ, শুক্রবার ভোর রাতে হঠাৎই টিনের ঘরের বাইরে আগুন জ্বলতে দেখে ঘুম ভাঙ্গে মন্ডল পরিবারের সদস্যদের । ওই বাড়ির গৃহকতৃ গীতা মন্ডল বলেন, “রাত আড়াইটে নাগাদ আমরা বুঝতে পারি কেউ আগুন লাগিয়ে দিয়েছে । আগুন রান্না ঘরে ঢুকে গেছিল । এই অবস্থায় আমার ছোট্ট নাতনি সহ আমার পরিবারের সকলে ঘুম থেকে উঠে বাঁচার চেষ্টা করি । ছেলে ঘর থেকে বেরিয়ে আসবে বলে দরজা খুলতে গিয়ে দেখে দরজা বাইরে থেকে লক করা হয়েছে । তখনই আমাদের সন্দেহ হয় কেউ বা কারা আমাদের জীবন্ত পুড়িয়ে খুনের চেষ্টা করেছে । আমার ছেলে সুজয় তখন প্রতিবেশীকে ফোন করে । ওরা সঙ্গে সঙ্গে ছুটে আসে । তখন ওরাও বুঝতে পারে বাড়ির চার পাশে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে কেউ পালিয়ে গেছে । ওরাই ঘরের দরজা বাইরে থেকে খুলে দিলে আমরা সবাই ঘর থেকে বেরিয়ে এসে প্রাণ বাঁচাই ।”

প্রতিবেশী শর্মিষ্ঠা দাস ঘোষ বলেন, “সিনেমা সিরিয়ালে এরকম ঘটনা দেখেছি । এভাবে যে প্রতিবেশীদের প্রাণ বাঁচাতে হবে, কখনই ভাবতে পারিনি । মধ্যরাত থেকে এখনো ভাবলেই গায়ে কাঁটা দিচ্ছে । ওদের বাড়ির এক রত্তি মেয়েটা ভীষন ভয় পেয়ে গেছে । এখনো বার বার কেঁপে উঠছে । কেউ কারুর ভীষন শত্রু না হলে এরকম ভাবে গোটা পরিবারকে খুন করে ফেলার চেষ্টা করবে না ।” মন্ডল পরিবারের সদস্যরা পুলিশকে গোটা বিষয়টি জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছে ।

স্থানীয় সূত্রে খবর, পাড়ায় সকলের সঙ্গে ভাল সম্পর্ক ওই পরিবারের সদস্যদের । আক্রান্ত পরিবারের সদস্যরা কেউ সক্রিয় রাজনীতির সঙ্গেও যুক্ত নয় । তবুও কেন এই ঘটনা ঘটল, কেউই বুঝে উঠতে পারছে না । টিটাগড় থানার পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে । এই ঘটনায় পুলিশ সূত্র খোঁজার চেষ্টা করছে । পুলিশ জানিয়েছে, অপরাধীদের খোঁজ চলছে ।

Related Articles

Back to top button
Close