fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

ইরানের উপর নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দায় রাশিয়া

ইরানের উপর নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দায় রাশিয়া

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ‘স্ন্যাপব্যাক মেকানিজমের নামে ওয়াশিংটন নাটক করছে। তাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বিভ্রান্ত করা।’ ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র একতরফাভাবে নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখার ঘোষণার পরেই প্রতিক্রিয়ায় রবিবার এভাবেই আমেরিকাকে নিশানা করেছে মস্কো। এ ব্যাপারে সরকারিভাবে বিবৃতি প্রকাশ করেছে রাশিয়ার বিদেশ মন্ত্রণালয়।

এর আগে গত শনিবার মার্কিন বিদেশ মন্ত্রী মাইক পম্পেও ঘোষণা দেন, “রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে পাস হওয়া ২২৩১ নম্বর প্রস্তাবের আওতায় ইরানের বিরুদ্ধে আগের সব নিষেধাজ্ঞা বহাল করা হচ্ছে।” একই সঙ্গে তিনি নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলিকে হুমকি সুরে বলেন, “তারা যদি নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নের বিরোধিতা করে, তাহলে তাদেরকেও একই রকম ‘পরিণতি’ ভোগ করতে হবে।”
পম্পেওর এই বক্তব্যের জবাবে রাশিয়ার বিদেশ মন্ত্রণালয় বিবৃতিতে জানিয়েছে, “বিশ্বকে এখনো বিভ্রান্ত করছে যুক্তরাষ্ট্র। তাই জানাচ্ছে, রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ যে কোনোভাবেই নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবের আওতায় কিছু নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করবে।

কিন্তু বাস্তবে নিরাপত্তা পরিষদ এমন কোনো পদক্ষেপ নেয়নি, যার কারণে ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা বহাল করা যায়। এসব কারণে বলা যায়, নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলিকে সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের নীতি অনুসরণ করতে বাধ্য করার জন্য এবং বিশ্ব সংস্থাকে তাদের হাতিয়ারে পরিণত করতে যুক্তরাষ্ট্র নাটক ছাড়া আর কিছুই করছে না।” একইসঙ্গে রুশ বিদেশ মন্ত্রণালয় সরাসরি জানিয়েছে, “মাইক পম্পেও যে বক্তব্য রেখেছেন, তা মোটেও গ্রহণযোগ্য নয়।”

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে বিশ্বের ছয় শক্তিধর দেশের সঙ্গে ইরান যে পরমাণু চুক্তি করেছিল তার আওতায় ইরানের ওপর জারি থাকা রাষ্ট্রপুঞ্জের অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে ১৮ অক্টোবর। এর সপ্তাহ দুয়েক পর অর্থাৎ ৩ নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। তাই রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা ধরণা করছেন, নির্বাচনের আগে ভোটারদের আকৃষ্ট করতে ইরানের প্রতি বিন্দুমাত্র ছাড় না দেয়ার মানসিকতা দেখাচ্ছেন ট্রাম্প। সেজন্যই বোধহয় গত শনিবার মার্কিন বিদেশ মন্ত্রী মাইক পাম্পে বলেছেন, “ইরানের ওপর রাষ্ট্রপুঞ্জের নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করতে হবে এবং অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার মেয়াদও অক্টোবরের মাঝামাঝিতে শেষ হবে না।”

Related Articles

Back to top button
Close