fbpx
দেশহেডলাইন

‘সচিন পাইলট শুধুই আমার সহকর্মী নয়, আমার বন্ধুও’পাইলটের বিদায়বেলায় আবেগঘন ট্যুইট রাহুলের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  পাইলটের মান ভাঙাতে আসরে নেমেছিলেন রাহুল-প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু রাজেশ পুত্রের কিছুতেই মান ভঞ্জন হল না। উল্টে বাড়ল বিপদ। এবার কংগ্রেসের সঙ্গে সচিন পাইলটের সম্পূর্ণ বিচ্ছেদ শুধু সময়ের অপেক্ষা।সেই যুব কংগ্রেস থেকে শুরু। কংগ্রেসের তরুণ মুখদের মধ্যে একজন ছিলেন সচিন পাইলট। আরেকজন ছিলেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। এঁরা সকলেই রাহুল গান্ধির সমসাময়িক। জ্যোতিরাদিত্য ইতিমধ্যেই বিজেপি যোগ দিয়েছেন। মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস সরকারও পড়ে গিয়েছে। সচিন পাইলটেরও বিদায় সময়ের অপেক্ষা। ইতিমধ্যেই তাঁকে উপমুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরানো হয়েছে। রাজস্থানে কংগ্রেসের এই ‘বিদ্রোহী’ নেতাকে নিয়ে এতদিন চুপ ছিলেন। মঙ্গলবার দুপুরে আবেগঘন ট্যুইট করলেন রাহুল গান্ধি।

আরও পড়ুন: উত্তপ্ত মরুরাজ্য, উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরানো হল পাইলট

এ দিন রাহুল ট্যুইটারে লিখলেন, ‘সচিন পাইলট শুধুই আমার সহকর্মী নয়, আমার বন্ধুও। দলের জন্য ও পূর্ণ কর্তব্য ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে গিয়েছে, একথা কেউ অস্বীকার করতে পারবে না। ভেবেছিলাম, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে। কিন্তু দুঃখের বিষয়, তা হল না।’ বার বার দলের তরফে সন্ধির বার্তা দিলেও সাড়া দিচ্ছিলেন না সচিন পাইলট। অন্যদিকে এখনই রাজস্থানে সরকার পড়ে যাওয়ার আশঙ্কাও নেই। এবার তাই বিক্ষুব্ধ সচিন পাইলটের বিরুদ্ধেই কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে কংগ্রেস।

Related Articles

Back to top button
Close