fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কোলাঘাটে জলের তোড়ে ভেসে গেল সাঁকো, চরম ভোগান্তি দুই জেলার মানুষদের

বাবলু ব্যানার্জি, কোলাঘাট: বর্ষা শুরু হওয়ার পর এই প্রথম মানুষজনদের ভোগান্তি শুরু হল কোলাঘাট ব্লকে। এই সমস্যা কতদিনে কমবে তা এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না। রূপনারায়ন নদে ব্যাপক জলস্ফীতির ফলে কোলাঘাট শহর থেকে সাহাপুর, কোলা ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের বেশ কিছুটা অংশ জলমগ্ন হয়ে পড়ে। ফলে এই এলাকার মানুষজন চরম ভোগান্তির মধ্যে পড়ে। এবার কোলাঘাট ব্লকের বৃন্দাবনচক গ্রামে কাঁসাই নদীর উপর বাঁশের সেতু জলের তোড়ে ভেঙে যাওয়ায় দেখা গেল মানুষজনদের মধ্যে চরম ভোগান্তি।

উল্লেখ করা যায়, এই নদী দিয়েই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বিস্তীর্ণ এলাকার জল রূপনারায়ন নদে গিয়ে পড়ে। প্রতিবছর এই কাঁসাই নদীর উপর যতগুলি বাঁশের সেতু থাকে অতিরিক্ত বৃষ্টি হওয়ার ফলে ভেঙে যায়। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সঙ্গে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সংযোগকারী এই সেতু গুলি ভেঙে যাওয়ায় দুই জেলার মানুষজন রা সমস্যার মধ্যে পড়ে। এ বছরও ব্যতিক্রম হতে দেখা গেল না। সেতু গুলি নিয়ন্ত্রণ করে জেলা পরিষদ।

স্থানীয় বাসিন্দা অলক সামন্ত বলেন, নদীতে প্রতিবছরই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বিস্তীর্ণ এলাকার জল পাস হতে দেখা যায়। কিন্তু এ বছর জলের স্রোত, সেই সঙ্গে জলের গর্জন বেস আতঙ্ক করে তুলেছে। স্থানীয় বৃন্দাবনচক জুনিয়র হাইস্কুলের শিক্ষক সুকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এই সেতু দিয়েই করোনা আবহকালে স্কুলের মিড ডে মিলের কাজ করতে যেতে হয়। কিন্তু সেতু ভেঙে যাওয়ায় চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হল। তবে জলের স্রোত যতক্ষণ না কমছে কতক্ষণ পর্যন্ত নির্মাণ করা যাবে না বলেই অনুমান।

এ বিষয়ে কোলাঘাট ব্লক প্রশাসনের প্রধান মদনমোহন মন্ডলকে ধারা হলে তিনি বলেন, উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানাবেন যাতে সাধারন মানুষের স্বার্থে সেতুটি পুনর্নির্মাণ হয়। তবে খবরে প্রকাশ নিম্নচাপ সৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া দপ্তরের কথা অনুযায়ী ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ব্লক প্রশাসনের সমস্ত দপ্তরকে সতর্ক থাকার কথা বলা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close