fbpx
দেশহেডলাইন

‘৬২-তে কী হয়েছিল ভুলে গেলে চলবে না’ রাহুলকে  বিঁধে কেন্দ্রের পাশে পাওয়ার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: চিন ইশুতে রাহুল গান্ধিকে  বিঁধে কেন্দ্রীয় সরকারের পাশে দাঁড়ালেন এনসিপি নেতা ও প্রাক্তন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী শরদ পওয়ার। তাঁর বক্তব্য়, সেনাবাহিনী এবং সরকার সজাগ ছিল বলেই চিনারা ভারতের তেমন ক্ষতি করতে পারেনি। শনিবার এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ার জানান, লাদাখে যে ঘটনা ঘটেছে তা অত্যন্ত উদ্বেগপূর্ণ তা সঠিক, কিন্তু এটা কেন্দ্র বা প্রতিরক্ষামন্ত্রকের কোনও ব্যর্থতা নয়। সেনাবাহিনী এবং সরকার সজাগ ছিল বলেই চিনারা ভারতের তেমন ক্ষতি করতে পারেনি। লাদাখ ইশুতে প্রতিদিনই কংগ্রেস ও রাহুল গান্ধি মোদি  সরকারকে আক্রমণ করছে। চিন সেনা দেশের ভূখণ্ড দখল করেছে বলেও দাবি করেছেন রাহুল। যদিও সরকার ও প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছন, চিন ভারতের কোনও এলাকায় ঢোকেনি ও ঢুকে নেই। যদিও তা মানতে নারাজ রাহুল ও কংগ্রেস।

এই ঘটনার সঙ্গে সরকারের ব্যর্থতার কোনও যোগ নেই। কারণ, সীমান্তে প্রহরার সময় সেনাবাহিনীর জওয়ানেরা এই ঘটনা দেখতে পেয়েছে। তা দেখেই তাঁরা পদক্ষেপ করেছেন। ফলে বলা যায় সেনাবাহিনী বা কেন্দ্র সঠিক পদক্ষেপই করেছে। তাই এই বিষয়ে সরকার ব্যর্থ তা বলা যায় না। এই বিষয়ে আজ শরদ পাওয়ার বলেন, দেশের নিরাপত্তার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে রাজনীতি কাম্য নয়। এনসিপি সুপ্রিমো বলছেন, “৬২-তে কী হয়েছিল ভুলে গেলে চলবে না। চিনারা ভারতের ৪৫ হাজার বর্গ কিলোমিটার এলাকা দখল করে নিয়েছিল। তা আমরা ভুলতে পারি না। বর্তমানে তারা কোনও জমি দখল করেছে কি না আমি জানি না, তবে এটি আলোচনা করার সময় আমাদের অতীত মনে রাখা দরকার। জাতীয় সুরক্ষার বিষয় নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়।”

পাওয়ার জানিয়েছেন, প্রতিরক্ষা একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তা খুবই সংবেদনশীল বিষয়। তাই এই বিষয় নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার বা সেনাবাহিনীর সমালোচনা করা উচিত নয়। বরং তিনি এই প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে জানান, ১৯৬২ সালের কথা আমাদের মনে রাখতে হবে। সেদিক থেকে দেখলে স্পষ্ট সেনাবাহিনী সঠিক কাজই করেছে। পাওয়ার  বলেন, “যুদ্ধের সম্ভাবনা আছে বলে আমি মনে করি না, তবে চfন অবশ্যই কোনও অপকর্ম করেছে। গালওয়ানে আমরা যে রুটটি তৈরি করছি তা আমাদের সীমান্তের দিকে। আমাদের সেনাবাহিনী চিনাদের দূরে সরানোর সাধ্যমতো চেষ্টা করেছে। এটাকে কারও ভুল বা ব্যর্থতা বলাটা কাঙ্ক্ষিত নয়। আমরা সতর্ক ছিলাম বলেই আচমকা বিপদে পড়ে যায়নি। তাই আমার মনে হয় না এ নিয়ে সরকারকে আক্রমণ করাটা ঠিক হবে।”

Related Articles

Back to top button
Close