fbpx
কলকাতাহেডলাইন

ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে সরব ট্যাক্সি সংগঠন, ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: এবার ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে সরব হল ট্যাক্সি সংগঠন। ট্যাক্সিতে উঠলেই দিতে হবে ৫০ টাকা। ভাড়া বাড়ানোর দাবি জানিয়ে চিঠি পাঠানো হল রাজ্য পরিবহন দফতরে । ভাড়া বাড়ানো নিয়ে আপাতত কোনও সিদ্ধান্ত হচ্ছে না জানাল রাজ্য পরিবহন দফতর। গত দশ দিন ধরে লাগাতার যে ভাবে পেট্রোল-ডিজেলের দাম বেড়ে চলেছে তাতে কম ভাড়ায় যত আসন তত যাত্রী নিয়ে বাস চালানো মুশকিল হয়ে উঠেছে। এবার বাসের সুরে দাবি দাওয়া পেশ করতে শুরু করল ট্যাক্সি সংগঠন। তাদের তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে ৩০ টাকায় ট্যাক্সি চালানো সম্ভব নয়।

ট্যাক্সি অ্যাসোসিয়েশনের নেতা বিমল গুহ যুগশঙ্খকে দেওয়া সাক্ষৎকারে জানিয়েছেন, দশ দিনে তেলের দাম বেড়েছে ৫ টাকা ৮০ পয়সা। ফলে রাস্তায় ট্যাক্সি চালানো আর নয় সম্ভব। তিনি বলেছেন, আমরা লিগালি চাইছি ৩০ টাকারটা ৫০ টাকা, প্রতি কিলোমিটারে ২৫ টাকা। আমরা অনেক আগেই ভাড়া বাড়াতে বলেছিলাম। যদিও আমাদের কথা শোনা হয়নি। রাজ্যের অনুরোধে আমরা রাস্তায় গাড়ি নামিয়েছি। পুরনো ভাড়াতেই গাড়ি চালাতে হচ্ছে। কিন্তু যে ভাবে জ্বালানির দাম বেড়েছে তাতে আমাদের পক্ষে আর সম্ভব নয়।

ট্যাক্সি সংগঠন জানিয়েছে আগামী ২৫ তারিখের মধ্যে ভাড়া না বাড়ালে ২৬ তারিখ থেকে তারা রাস্তায় গাড়ি নামাবে না। লকডাউন পূর্ব ও পরবর্তী অধ্যায়ে যত সংখ্যক ট্যাক্সি রাস্তায় নেমেছে তাতে যাত্রী প্রায় হচ্ছে না বললেই চলে। এর মধ্যে ৩০ টাকার ভাড়া ৫০ টাকা চাইলে আরও যাত্রী হবে না বলেই মনে করছে একাংশ। তবে ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে অনড় অন্যতম ট্যাক্সি সংগঠন বিটিএ।

আরও পড়ুন: লকডাউনে মানসিক অবসাদের জের! কলকাতায় এক দিনে আত্মহত্যা ৭ জনের

অন্যদিকে, করোনা আবহে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে বলে ট্যাক্সি চালকদেরও সরকারি স্বাস্থ্যবিমার আওতায় আনার দাবি তুলেছে এআইটিইউসি অনুমোদিত ট্যাক্সি সংগঠন। এ বিষয়ে রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে একটি চিঠি দিয়েছে তারা। সেখানে আরও বেশ কিছু দাবির কথা উল্লেখ করা হয়েছে। তার মধ্যে ট্যাক্সি চালকদের মাস্ক, স্যানিটাইজার, গ্লাভস দেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছে। পাশাপাশি, লকডাউন চলাকালীন সমস্ত রকম গাড়ির ট্যাক্স মুকুবেরও আবেদন জানানো হয়েছে সংগঠনের তরফে।

যাত্রীদের একাংশ অবশ্য ট্যাক্সি চালকদের এই সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ। অনেকেরই বক্তব্য, এই লকডাউন অধ্যায়ে প্রত্যেকেরই পকেটে টানাটানি চলছে। সেখানে ট্যাক্সিতে উঠলেই ৫০ টাকা এটা মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। এর ফলে অ্যাপ ক্যাব বা অন ডিমান্ড ক্যাবের দিকেই ঝুঁকছেন যাত্রীরা। ফলে ট্যাক্সির ভাড়া বাড়িয়ে আদৌ যাত্রী মিলবে কিনা সেটাই এখন দেখার।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close