fbpx
পশ্চিমবঙ্গ

কালনার বেহাল রাস্তা পরিদর্শন মহকুমা শাসকের

অভিষেক চৌধুরী,কালনা: খানাখন্দে ভরা কালনায় এস টি কে কে সড়কের অবস্থা বেশ ভয়াবহ হয়ে উঠেছে।আর এই বর্ষায় তা যেন হয়ে উঠেছে মরণফাঁদ।সেই কারণেই শুক্রবার সরেজমিনে এসটিকেকে রোড পরিদর্শন করলেন কালনা মহকুমা শাসক সুমন সৌরভ মোহান্তি।

কালনার এস টি কে সড়ক সম্প্রসারণ শুরু হওয়ার পর থেকেই এই সড়ক ভয়াবহ ওঠে।উড়তে শুরু করে ধুলো বালি।খানাখন্দে ভর্তি এই রাস্তায় লেগে থাকে একটার পর একটা দুর্ঘটনা।আর এই কারণে প্রতিবাদেও নামতে দেখা গেছে স্থানীয় বাসিন্দাদের।সড়কের হাল ফেরানোর নামে একটার একটা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পর্যালোচলা সভা করা হলেও এস টি কে কে সড়কের অবস্থা যা ছিলো তাই রয়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের।

এই সড়ক নির্মাণের অগ্রগতি নিয়ে গত জুন মাসের ২৫ তারিখে একটি পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় পূর্বস্থলী- ১ নং ব্লকের সভাকক্ষে।এই সভায় অংশগ্রহন করেন রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ,কালনা মহকুমা শাসক সুমন সৌরভ মোহান্তি,বিডিও নীতিশ বালা,পূর্ত দপ্তরের ইঞ্জিনিয়াররা।

সভা শেষে মহকুমা শাসক ঘোষণা করেন সড়কের খানাখন্দ, গর্ত দ্রুত ভরাট করা হবে এবং রাস্তার পাশ দিয়ে নিকাশি ব্যবস্থা করা হবে যাতে জল বেরিয়ে যেতে পারে।রাস্তার ধারে সাধারণ মানুষের জমিয়ে রাখা বালি, পাথর সব সরিয়ে ফেলা হবে।

তিনি আরো বলেন, কালনা ১ ও ২ নম্বর ব্লক এবং পূর্বস্থলী ১ ও ২ নং ব্লকে পৃথক ভাবে কাজ শুরু করা হবে।শুক্রবার কালনা মহকুমা শাসকের সড়ক পরিদর্শনের ঘোষণা হতেই যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সড়ক মেরামতের কাজ শুরু করা হয়।স্বাভাবিক কারণেই খুশি সাধারণ মানুষও।

তিনি এইদিন পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের জানান বর্ষার মধ্যে সড়কের পাকাপাকি কাজ করা যাবেনা।বর্ষার পর সেই কাজ শুরু করা হবে।তবে জন সাধারণের যাতে অসুবিধা না হয়, তারজন্য খানাখন্দ ভরাটের কাজ চলবে। এই ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইঞ্জিনিয়ার ও ঠিকাদারের প্রতিনিধি সুকুমার পালকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন।

Related Articles

Back to top button
Close