fbpx
শিক্ষা-কর্মজীবনহেডলাইন

দুর্নীতি রুখতে উচ্চ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের দাবীতে ‘গেজেট পাঠাও, গেজেট পড়াও’ কর্মসূচি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: উচ্চ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া সাত বছরে পা দিল। গেজেট তথা নিয়োগ বিধি লঙ্ঘণের অভিযোগে বারেবারে থমকে গেছে নিয়োগ প্রক্রিয়া। বহু প্রতীক্ষার পর আদালতের নির্দেশে প্রকাশিত হয়েছে মেধা তালিকা। আর এই মেধা তালিকাতেও দেখা গেছে বিস্তর অসঙ্গতি।

 

 

ইন্টারভিউতে অংশ নেওয়া সব প্রার্থীদের নাম মেধা তালিকায় নেই। টেট ও অ্যাকাডেমিক স্কোরের ক্ষেত্রে ভুরি ভুরি অনিয়ম। বিষয় ও ক্যাটাগরী ভিত্তিক প্রার্থী ও শূণ্যপদের ১: ১.৪ অনুপাত মানা হয়নি। সাত বছরের শূণ্যপদ ও নব স্থাপিত বিদ্যালয় গুলির অনুমোদিত ৫১০৮ টি শূণ্যপদ ফাইনাল ভেকেন্সীতে যুক্ত হয়নি। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীহীন এসসি, এসটি, ওবিসি ও প্রতিবন্ধী ইত্যাদি সংরক্ষিত শূণ্যপদগুলি থেকেও সমাজের প্রান্তিক অংশের অপ্রশিক্ষিত প্রার্থীদের নিয়োগ পক্রিয়া থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

 

অর্থাৎ মেধাতালিকা প্রস্তুতিতেও গেজেট তথা নিয়োগ বিধিকে মান্যতা দেওয়া হয়নি। তাই মামলার অজুহাত না দিয়ে যে অসঙ্গতির কারণে এত মামলা সেগুলির দ্রুত সংশোধনের দাবী জানাচ্ছে আপার প্রাইমারী সংগ্রামী মঞ্চ। গেজেট তথা নিয়োগ বিধিকে মান্যতা দিয়ে অসঙ্গতি দূর করে মামলা মিটিয়ে দ্রুত নিয়োগের দাবীতে প্রোটেস্ট ফ্রম হোমের অঙ্গ হিসেবে কমিশনে গেজেট তথা নিয়োগবিধি গণ ইমেলের মাধ্যমে ৫ই জুন স্কুল সার্ভিস কমিশনে “গেজেট পাঠাও, গেজেট পড়াও” কর্মসূচীতে অংশ নিল আপার প্রাইমারী সংগ্রামী মঞ্চের সদস্যরা। গণ ইমেলের পাশাপাশি গাছ লাগিয়ে পরিবেশ সচেতনতার বার্তাও দিয়েছেন তাঁরা। নিয়োগ প্রার্থীদের দাবী সুস্থ পরিবেশের জন্য যেমন বৃক্ষরোপণ জরুরী তেমনই সুস্থ সমাজের জন্য শিক্ষক নিয়োগ জরুরী।

 

 

আপার প্রাইমারী সংগ্রামী মঞ্চের পক্ষে অর্পিতা প্রামানিক, অষ্টাপদ শাসমল, অপূর্ব ঘোষ, দেবাশীষ মুদি।

Related Articles

Back to top button
Close