fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সাংবাদিকতায় নক্ষত্র পতন, করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত ড. রহিত বসু, শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সাংবাদিকতার জগতে নক্ষত্র পতন। বুধবার দুপুরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে  শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন উত্তরবঙ্গ সংবাদের এসোসিয়েট এডিটর ড. রোহিত বসু। তবে হৃদরোগের পেছনে করোনাভাইরাস মূল কারণ। এমনটাই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। প্রায় বিগত দেড় বছর ধরে তিনি কান্ডারি হিসেবে উত্তরবঙ্গ সংবাদকে দিশা দেখিয়েছেন।

সংবাদপত্রের দুনিয়ায় দীর্ঘ জীবনে আনন্দবাজার পত্রিকা, একদিন, তারা নিউজ, খাস খবরে তিনি অসংখ্য বিষয়ে লিখেছেন ও অনুষ্ঠান পরিচালনা করেছেন। জানা গিয়েছে  বিগত কিছুদিন থেকেই তার শারীরিক অবস্থা খারাপ ছিল। গত দুদিন আগে তিনি শিলিগুড়ি থেকে কলকাতায় নিজের বাড়িতে ফিরে ছিলেন। তারপরই আজ বুধবার বাড়িতেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান। তবে তার মৃত্যুর পর ওনার শরীর করোনা পরীক্ষা করা হলে ওনার দেহে করোনা ভাইরাসের জীবাণু সন্ধান পাওয়া যায়। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান চিকিৎসকরা।

ড. রোহিত বসু, এসোসিয়েট এডিটর উত্তরবঙ্গ সংবাদ

এছাড়াও একাধিক অ্যাড এজেন্সিতে কাজের সূত্রে তিনি তাঁর বহুমুখী প্রতিভার পরিচয় রেখেছিলেন। কর্মজীবনের শেষ বেলায় উত্তরবঙ্গ সংবাদের সঙ্গে তাঁর হার্দ্যিক সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। কলকাতার ঠিকানা ছেড়ে তিনি শিলিগুড়িতে এসে উত্তরবঙ্গ সংবাদের অ্যাসোসিয়েট এডিটর পদে যোগ দিয়েছিলেন। কাগজের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন।

আদ্যন্ত বিজ্ঞানের ছাত্র রহিত বসুর শিক্ষাজীবনও বর্ণময়। শহিদ রামেশ্ব বিদ্যামন্দিরে তাঁর পড়াশোনা শুরু। সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ থেকে দমদম মতিঝিল কলেজ, রাজাবাজার সায়েন্স কলেজের মতো প্রথম সারির শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রজীবন কাটিয়েছেন।

তাঁর লেখনীর অসংখ্য মুগ্ধ পাঠক রয়েছে। উত্তরবঙ্গ সংবাদে তাঁর লেখা পাঠকদের কাছে বিশেষ আকর্ষণ ছিল। তাঁর আকস্মিক প্রয়াণে শোক সমবেদনা জানিয়েছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দীর্ঘদিন আনন্দবাজার পত্রিকা সহ একাধিক সংবাদমাধ্যমে কৃতিত্বের সঙ্গে কাজ করে গিয়েছেন। তার আকস্মিক   প্রয়াণে সংবাদমাধ্যম অত্যন্ত ক্ষতির সম্মুখীন হল বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি রহিত বসুর পরিবার পরিজন এবং অনুগামীদের প্রতি সমবেদনা জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ডক্টর রোহিত বসুর আকস্মিক প্রয়াণে উত্তরবঙ্গ সংবাদ পরিবার শোকস্তব্ধ। উত্তরবঙ্গ সংবাদের সম্পাদক সব্যসাচী তালুকদার তাঁর পরিবারকে এই দুঃসময়ে গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

 

Related Articles

Back to top button
Close