fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

পাকিস্তানের নয়া প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলেন শাহবাজ শরিফ

যুগশঙ্খ ,ওয়েব ডেস্ক: গদিচ্যুত হয়েছে ইমরান খান। তার দল পিটিআই-য়ের অনাস্থা ভোটের সমস্ত কৌশল ব্যর্থ হয়েছ। পাক পাকিস্তানের নয়া প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলেন শাহবাজ শরিফ। সোমবার তাঁকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করেছে পাকিস্তান পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি।

শাহবাজ নিজের দল মুসলিম লিগ-নওয়াজের পাশাপাশি পাকিস্তান পিপলস পার্টি, মুত্তাহিদা মজলিস-ই-আমল-সহ বেশ কয়েকটি দলের সমর্থন পেয়েছেন। তবে ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির বৃহত্তম দল, সদ্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের তেহরিক-ই-ইনসাফ পাকিস্তান নয়া প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের উদ্যোগের বিরোধিতা করে সভা থেকে ওয়াকআউট করে।

শাহবাজ শরিফ এর আগে পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশে সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদি মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। তিনি তিনবারের পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ভাই। ২০১৭ সালে দুর্নীতির দায়ে ক্ষমতাচ্যুত হন নওয়াজ শরিফ। তাঁকে জেলেও যেতে হয়। যদিও বর্তমানে চিকিৎসার প্রয়োজনে জামিনে মুক্ত রয়েছেন তিনি।

দেশের আর্থিক দূরবস্থা ও ভুল পররাষ্ট্রনীতির অভিযোগে ইমরানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব এনেছিলেন এই বিরোধী জোট নেতা শাহবাজ শরিফই।

দেশের বাইরে শাহবাজ ততটা পরিচিত না হলেও দেশের ভেতরে প্রশাসনিক দক্ষতার জন্য তার সুনাম আছে।

দেশের আর্থিক দুরবস্থা ও ভুল পররাষ্ট্রনীতির অভিযোগে ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে বিরোধী দলগুলো। এ অনাস্থা প্রস্তাবকে ‘অসাংবিধানিক’ আখ্যা দিয়ে ৩ এপ্রিল খারিজ করে দেন জাতীয় পরিষদের ডেপুটি স্পিকার কাসিম খান সুরি। ওই দিনই প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে জাতীয় পরিষদ ভেঙে দেন প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি। এতে চরম রাজনৈতিক সংকটে পড়ে পাকিস্তান।

এ পরিস্থিতিতে স্বতঃপ্রণোদিত নোটিশ দেন সুপ্রিম কোর্ট। বিরোধীরাও আদালতের শরণাপন্ন হন। টানা পাঁচদিনের শুনানি শেষে গত বৃহস্পতিবার অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ ও জাতীয় পরিষদ ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত অসাংবিধানিক ঘোষণা করেন সর্বোচ্চ আদালত। একইসঙ্গে শনিবার অনাস্থা প্রস্তাবের সুরাহার নির্দেশ দেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চ।

Related Articles

Back to top button
Close